রাঙামাটি বিএফডিসির অভিযান : কাপ্তাই হ্রদের মাছ আটক হলো ফেনী সীমান্তে

॥ আলমগীর মানিক ॥

সরকারী সিদ্ধান্তনুসারে রাঙামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ কর্তৃক জারিকৃত আদেশ মোতাবেক চলতি মাসের গত পহেলা মে থেকে দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার সর্ববৃহৎ কৃত্রিম কাপ্তাই হ্রদ থেকে সকল প্রকার মৎস্য সম্পদ আহরণ-বিতরণ-বিপনন সম্পূর্নরূপে নিষিদ্ধ রয়েছে। আগামী তিনমাসের জন্যে কাপ্তাই হ্রদে এই আদেশ কার্যকর থাকবে।

দেশের অন্যতম মিঠাপানির কাপ্তাই হ্রদে প্রাকৃতিক মাছসহ অবমুক্তকৃত পোনামাছের বৃদ্ধি ও সুষ্ঠ প্রজনন নিশ্চিত করা এবং হ্রদের ভারসাম্য রক্ষায় উক্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলেও এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ি সিন্ডিকেট অদ্যবদি পর্যন্ত কাপ্তাই হ্রদে মাছ ধরা অব্যাহত রেখেছে।

পাহাড়-পর্বত নির্ভর অত্রাঞ্চলে দূর্গমতার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে অসাধু মৎস্যশিকারী সিন্ডিকেট প্রতিদিনই রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদ থেকে মাছ ধরে সেসব মাছ বিভিন্ন দূরবর্তী সড়কপথ ব্যবহার করে ফেনী হয়ে ঢাকায় নিয়ে অন্য এলাকার মাছ বলে বিক্রি করে। সোর্সের মাধ্যমে এই ধরনের নিশ্চিত তথ্য পায় কাপ্তাই হ্রদ ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশন বিএফডিসি রাঙামাটি অফিস কর্তৃপক্ষ।

এরই আলোকে ধারাবাহিক তথ্যের ভিত্তিতে রোববার রাতে রাঙামাটি বিএফডিসি’র ব্যবস্থাপক কমান্ডার মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান তার ডেপুটি ম্যানেজার জাহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিমকে রাঙামাটি থেকে সূদুর রামগড় পাঠান বিশেষ অভিযান পরিচালনার জন্যে। গভীর রাতে ফেনীর কাছাকাছি কয়লারমুখ সীমান্ত ফাঁড়ীর বিজিবি সদস্যদের সহযোগিতা নিয়ে সেখানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ২৮০ কেজি বড় জাতের দেশীয় টেংরা মাছ আটক করে রাঙামাটি বিএফডিসি কর্তৃপক্ষ।

বিএফডিসির ব্যবস্থাপক কমান্ডার আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত মাছের বাজারমূল্য আনুমানিক ৭০ হাজার টাকা। জনাব আসাদ বলেন, আসলে রাঙামাটি থেকে এতোদূরে অভিযান পরিচালনা অত্যন্ত দূস্কর এটা জানা সত্বেও আমি আমার টিমকে সেখানে পাঠাই। তারা সেখানে গিয়ে সোর্সের দেওয়া তথ্যের শতভাগ সত্যতা পায়।

তিনি বলেন, অভিযানের সময় মাছগুলো বহনকারি মিনি পিকআপটির পেছনে ধাওয়া করলে বিষয়টি বুঝতে পেরে হেলফার উপর থেকে মাছের ড্রামগুলো রাস্তায় ফেলে দ্রুতগতিতে পালিয়ে যায়। পরে আমরা মাছগুলো জব্দ করি। তিনি বলেন এগুলো চট্টগ্রামের বাজারে নিলামে বিক্রি করে প্রাপ্ত সমুদয় অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে প্রেরণ করা হবে।