থানচিতে অপহৃতদের মধ্যে ২নারীর মুক্তিলাভ!

॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

বান্দরবানের থানচি উপজেলা সদর থেকে ৬কিঃমিঃ পুর্বদিকে তুংখ্যুং পাড়া থেকে অস্ত্রধারীদের হাতে অপহৃতদের মধ্যে দুই নারীকে ছেড়ে দিয়েছে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা। তবে গ্রাম প্রধান (কারবারী) আথুই মং মারমাকে আস্তানায় বন্দি করে রাখা হয়েছে।

যৌথ বাহিনীর সদস্যরা তাদের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে বলে সরকারি সুত্র সোমবার দুপুরে জানিয়েছে। গত শনিবার দুপুরে ওই পাড়া থেকে গ্রাম প্রধান আথুই মং মারমা, তার স্ত্রী আরিমা মারমা এবং শ্যালিকা মেনুপ্রু মারমা অপহৃত হন সন্ত্রাসীদের হাতে।

বলিপাড়া বিজিবি ব্যাটালিয়ন এবং থানচি থানার পুলিশ সুত্র জানায়, গত রোববার সন্ধ্যায় অপহৃতদের মধ্যে গ্রাম প্রধানকে তাদের আস্তানায় বন্দি রেখে স্ত্রী ও শ্যালিকাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

গ্রাম প্রধান আথুই মং মারমার ছেলে মংমংসে মারমাকে অস্ত্রসহ ফিরিয়ে দেয়া না হলে গ্রাম প্রধানকে ছাড়া হবে না বলে সাফ জবাব দিয়েছেন সন্ত্রাসীরা, জানিয়েছেন থানছি থারার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) আবদুল সাত্তার ।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মংমংচিং মারমা জানান, দুই বছর আগে কথিত আরাকান আর্মিতে যোগদান করেছিলেন মংমংসে মারমা।

তিনি কয়দিন আগে নগদ ৮ লাখ টাকাসহ একটি ভারী অস্ত্র নিয়ে আরাকান আর্মির আস্তানা থেকে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর পরই ক্ষিপ্ত হয়ে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা(কথিত আরাকান আর্মি) ওই গ্রামে হানা দেয় এবং গ্রাম প্রধানসহ তিনজনকে অপহরণ করে। মংমংসে হলো থানছির তুংখ্যুং পাড়া গ্রাম প্রধান (কারবারী) আথুই মং মারমা ছেলে।

এদিকে, বলিপাড়া বিজিবি ব্যাটালিয়ন কমান্ডার লে.কর্ণেল হাবিবুল হাসান বলেন, সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার এবং আটক গ্রাম প্রধানকে উদ্ধারে যৌথবাহিনীর উদ্ধার তৎপরতা চলছে।