কাপ্তাইয়ে ক্ষতিগ্রস্থ ৩০ পরিবারের মাঝে টিন ও নগদ অর্থ বিতরণ

॥ নূর হোসেন মামুন 
১৩ই জুন পার্বত্য অঞ্চলের সর্ববৃহৎ পাহাড় ধ্বসে কাপ্তাইয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এই দিনেই প্রাকৃতিক দূর্যোগের কবলে পরে কোমলমতী শিশু সহ প্রাণ হাড়ায় প্রায় ১৮ জন।
কাপ্তাই উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে বর্ষা মৌসুমে প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া ২৮ পরিবারের মাঝে উপজেলা শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গনে ২৪ মে বৃহস্পতিবার সকালে ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রনালয়ের অর্থায়নে ৫৬ বান্ডিল টিন এবং ১ লক্ষ ৬৮ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়। এছাড়া চিৎমরম ইউনিয়নে সম্প্রতি অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া দুই পরিবারকে চার বান্ডিল টিন এবং ১২ হাজার টাকা আর্থিক সাহায্য দেয়া হয়।
এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব টিন ও নগদ অর্থ প্রদান করেন কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল অামিন। এদিকে কাপ্তাই ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী অাব্দুল লতিফ, চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান অানোয়ার ইসলাম চৌধুরী বেবি, ওয়াগ্গা ইউপি চেয়ারম্যান চিরঞ্জিত তনচংগ্যা, রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান সায়ামং মারমা সহ চিৎমরম ইউপি চেয়ারম্যান খ্যাইসাঅং মারমা উপস্থিত থেকে বিভিন্ন পরিবারের জন্য বরাদ্দকৃত টিন ও আর্থিক সাহায্য গ্রহন করেন।
কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল অামিন জানান, মোট বরাদ্দ ২৮ পরিবারের জন্য। আমরা সেটা ৫ ইউনিয়নে ভাগ করে দিয়েছি। এর মধ্যে চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নে দেওয়া হয়েছে ১২ বান্ডিল টিন ও ৩৬ হাজার টাকা, রাইখালি ইউপিতে দেওয়া হয়েছে ১০ বান্ডিল টিন ও ৩০ হাজার টাকা, চিৎমরম ইউপিতে ১০ বান্ডিল টিন ও ৩০ হাজার টাকা, কাপ্তাই ইউপিতে ১২ বান্ডিল ও ৩৬ হাজার টাকা, ওয়াগ্গা ইউপিতে ১২ বান্ডিল ও ৩৬ হাজার টাকা।