আজে বাজে টক শো বন্ধের দাবী জানিয়ে চট্টগ্রাম টেলিভিশন শিল্পী সমিতির আলোচনা সভায় ক্ষোভ প্রকাশ

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

তালিকাভুক্ত শিল্পীদের নিয়ে ২০০৩ সালে গঠিত চট্টগ্রাম টেলিভিশন শিল্পী সমিতি চট্টগ্রাম টেলিভিশনের অনুষ্ঠানের ধারন সুচী, প্রচার সুচি,ও রমজান মাসের অনুষ্ঠান সুচী নিয়ে ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। ৪/৬/২০১৮ চান্দগাঁও আবাসিক এলাকায় সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে শিল্পী সমিতির সভাপতি সাপ্তাহিক ইস্টার্ণ ট্রেড এর সম্পাদক, শিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক শেখ নজরুল ইসলাম মাহমুদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় শিল্পী সমিতির নেতৃবৃন্দ বলেন সিটিভির প্রচারিত অনুষ্ঠানমালা দেখে এখন রমজান মাস তা মনে হচ্ছেনা। সিটিভিতে প্রচারিত আজে বাজে টক শো বন্ধের দাবী জানান শিল্পী সমিতি নেতৃবৃন্দ। বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক আবসার মাহফুজ দৈনিক পূর্বকোন, কাঞ্চন মহাজন দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশ, সুপলাল বড়ূয়া দৈনিক পূর্বদেশ, অ,ব,ম খোরশেদ দৈনিক আজাদী, শিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক এম, এ. হাসেম, , শিলা চৌধুরী, সাংবাদিক আবসার ঊদ্দিন অলি, এডভোকেট রানা । নেতৃবৃন্দ বলেন বাইরের এরেঞ্জার দিয়ে অনুষ্ঠান করে এতে শিল্পীদের সম্মানীর টাকা বাইরে চলে যাচ্ছে। শিল্পীগন টক শো বন্ধ করে বিনোদন মুখী চট্টগ্রামের সংস্কৃতির সাথে জরিত আঞ্চলিক, ভান্ডারী, জারীগান, পল্লীগান,হাসন, লালন আঞ্চলিক নাটক, তালিকাভুক্ত শিল্পীদের নিয়ে অনুষ্ঠান বানানোর জন্য দাবী জানান এবং তালিকাভুক্ত সঙ্গীত পরিচালক ছাড়া বহিরাগত যে কাউকে অনুষ্ঠান না দেয়ার দাবী জানান। ইদানিং আমরা লক্ষ্য করছি তালিকাভুক্ত নয় এমন কাউকে অনুষ্ঠান দেয়া হচ্ছে। বিটিভির অনুষ্ঠান প্রচার না করে চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান নিয়মিত প্রচারের দাবী জানান কর্তৃপক্ষের নিকট। চট্টগ্রাম টেলিভিশনের অনুষ্ঠানের মান উন্নয়ন, জনস্বার্থে ও শিল্পীদের স্বার্থে রেকর্ডিং এর পূর্বে মহড়া করে ভাল অনুষ্ঠান বানানোর দাবী জানান তারা। এ ব্যাপারে চট্টগ্রমের সমস্ত শিল্পী সংগঠনকে এগিয়ে আসার আহবান জানান চট্টগ্রাম টেলিভিশন শিল্পী সমিতির নেতৃবৃন্দ। সভাপতির ভাষনে শেখ নজরুল ইসলাম মাহমুদ বলেন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট লেখালেখির মাধ্যমে আমরা আমদের ন্যয্য পাওনা আদায় করে নিতে হবে।