শৈলকুপায় রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৩০

॥ ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ভাটবাড়িয়া গ্রামে রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সবাইকে প্রথমে স্থানীয় শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তাদের মধ্যে গুরুতর ৭ জনকে ঝিনাইদহ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে রেজাউল ইসলাম, রিপন হোসেন, আক্তার হোসেন, জামাল হোসেন, লালচান হোসেন, ইমরান হোসেন, হিরক ইসলাম ও মোক্তার হোসেনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এদের মধ্যে মোক্তারের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান। ঝিনাইদহের সিনিয়র ও সফল সহকারী পুলিশ সুপার (শৈলকুপা সার্কেল) তারেক আল মেহেদি জানান, সারুটিয়া ইউনিয়নের ভাটবাড়িয়া গ্রামের আজিজুর রহমান মেম্বর ও আফজাল হোসেনের সামাজিক দল রয়েছে। দু’দলই আওয়ামী লীগ সমর্থক। আধিপত্য বিস্তার নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিলো। গত ১ জুলাই দু’দলের সংঘর্ষে ৩ জন আহত ও ২০টি বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর হয়। তিনি আরো জানান, এরই জের ধরে শনিবার সকালে উভয় পক্ষ ঢাল, সড়কি, রামদা, লাঠিসোটা ও ইটপাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের ৩০ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে ও আহতদের উদ্ধার করে শৈলকুপা হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনার পর এলাকায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।