সনাকের উদ্যোগে রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতালে যৌথ সভা

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

১৫ জুলাই ২০১৮ তারিখ রবিবার ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) ও সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) রাঙ্গামাটি এর উদ্যোগে রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতালে সেবাগ্রহীতাদের সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার সিভিল সার্জন জনাব ডাঃ শহীদ তালুকদার এর উপস্থিতিতে উক্ত সভায় সভাপতিত্ব সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এর সভাপতি জনাব অমলেন্দু হাওলাদার। টিআইবি এরিয়া ম্যানেজার মো: আরিফ হোসেন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে হাসপাতালের বিভিন্ন সুবিধা-অসুবিধা তুলে ধরেন আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা জনাব ডাঃ শওকত আকবর। যারা বিভিন্ন সময় হাসপাতাল থেকে বিভিন্ন ধরণের সেবা গ্রহণ করেছেন এমন জনগন, সাংবাদিক, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সদস্য এবং সনাক ও স্বজন সদস্যরা উক্ত সভায় অংশগ্রহণ করেন। সভায় হাসপাতালে সেবার মান উন্নয়নে সেবাগ্রহীতাবৃন্দ তাদের মতামত প্রদানের পাশাপাশি হাসপাতালের বিভিন্ন সমস্যার বিষয়ে উত্থাপন করেন।
এ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থার সমন্বয় করা, হাসপাতালের ওয়ার্ড ও টয়লেট পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা, রোগীদের জন্য পর্যাপ্ত অক্সিজেন সরবরাহ করা, নির্দিষ্ট সময়ের পর ঔষধ কম্পানীর প্রতিনিধিদের হাসপাতালে প্রবেশ, কর্তব্যরত ডাক্তারদের রোগীদের সাথে সম্পর্ক উন্নয়ন, হাসপাতালে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা রক্ষায় হাসপাতাল এলাকায় গরু বিচরণ রোধ করা, রাতের বেলা হাসপাতালে নিরবিচ্ছিন্ন আলো সরবরাহ নিশ্চিত করা ইত্যাদি বিষয় উত্থাপন করা হয়েছে। ু
সিভিল সার্জন জানান, হাসপাতালের পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য আট জন পরিচ্ছন্নতা কর্মী নিয়োগ দেয়া হয়েছে, এছাড়া হাসপাতাল এলাকার পরিস্কাল পরিচ্ছন্নতার জন্য তিনি পৌর মেয়রের সাথে আলোচনা করবেন বলে জানান। এছাড়া রাতের বেলায় নিরচ্ছিন্ন আলো সরবরাহের জন্য সৌর বিদ্যুতের ব্যবস্থা করার জন্য উন্নয়ন বোর্ডের সাথে আলোচনা করবেন। হাসপাতালে জায়গা সল্পতার জন্য কিছু ক্ষেত্রে ব্যাক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষা করা সম্ভব হয় না স্বীকার করে তিনি জানান, নব নির্মিত ভবনের কাজ সম্পন্ন হয়ে গেলে এই সমস্যা আর থাকবে না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, হাসপাতাল এলাকায় নিরাপত্তা ব্যাবস্থা জোরদার করার জন্য খুব দ্রুতই সিসি ক্যামারা স্থাপন করা হবে। হাসপাতালের সেবার মান আগের তুলানায় বৃদ্ধি পেয়েছে দাবি করে তিনি বলেন হাসপাতালের সেবার মান উন্নয়নের জন্য যে কোন পরামর্শ সাদরে গ্রহণ করা হবে।
অনুষ্ঠানের সভাপতি জনাব অমলেন্দু হাওলাদার বলেন হাসপাতালের সেবার ক্ষেত্রে নাগরিকবৃন্দের অসীম চাহিদা থাকবে কিন্তু দক্ষ নেতৃত্ব ও ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে সর্বোত্তম সেবা প্রদান করতে হবে। তিনি আরো বলেন হাসপাতালের সাথে নাগরিকবৃন্দের সুসম্পর্ক না থাকলে ভাল সেবা নিশ্চিত করা যায়না। নাগরিকদের সাথে সুসম্পর্কের মাধ্য্যমে এবং সকলের সহযোগিতা নিয়ে সেবার মান উন্নয়ন করতে হবে।