জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

॥ স্মৃতিবিন্দু চাকমা ॥

জুরাছড়ি উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তর এর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার ১৯ জুলাই পোনা অবমুক্তকরণ র‌্যালী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাশেদ ইকবাল চৌধুরী সভাপতিত্বে প্রধান শিক্ষক নিত্যানন্দ চাকমা সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান উদয়জয় চাকমা। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিটন চাকমা প্রমুখ। সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা দীপন চাকমা,মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তরুন চাকমা,ইউআরসি কর্মকর্তা মোরেশদুল আলম,মৎস্য চাষী অনিল চাকমা,মৎস্যজীবি সুমন চাকমা।
সভায় বক্তরা বলেন,মৎস্য উৎপাদনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে ৩য় অবস্থানে রয়েছে বলে জানান।এছাড়াও মৎস্য চাষী অনিল চাকমা বলেন,বিগত দুই বছরে প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারণে অনেক পোনা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।তাই এই চলতি বছরে তার নিজস্ব মাছের পোনা বিক্রি করে বিগত সময়ের ক্ষতির অর্থ উঠে আসবে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
উপজেলা চেয়ারম্যান উদয়জয় চাকমা বলেন,মৎস্য চাষ একটি লাভ জনক ব্যবসা।বর্তমানে মৎস্য চাষে উৎসাহী হয়ে প্রত্যন্ত এলাকা ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত বগাখালীতে ও নিজস্ব অর্থায়নে পুকুর তৈরী করে মাছ চাষ করা হচ্ছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাশেদ ইকবাল চৌধুরী মৎস্যজীবিদের উদ্দেশ্য করে বলেন, জেলেদের সচেতনতা থাকলে কাপ্তাই হ্রদের জেলেরা স্বালম্ভী হতে পারবে। তাই জেলেদের ভিজিডি চাউল বৃদ্ধির জন্য ইতিমধ্যে জেলা সমন্বয় সভায় উপস্থাপন করা হয়েছে বলে জানান। তিনি আরো বলেন,যাহাতে মৎস্য চাষীরা ভালোভাবে চাষ করতে পারেন সেজন্য কৃষিএবং সোনালী ব্যাংক থেকে লোনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।