ব্রেকিং নিউজ

দীঘিনালায় গুলি করে যুবক হত্যা : গ্রেফতার ১

॥ মোঃ আল আমিন ॥

খাগড়াছড়ির দীঘিনালার পোমাং পাড়ায় মঙ্গলবার রাতে গুলি করে যুবক হত্যার ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। হত্যা ঘটনার সাথে আটককৃত ব্যাক্তি সম্পৃক্ত রয়েছে এমন নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে ঘটনার সময় সে নিহত মঞ্জুর সাথে অন্যান্যদের মতো তাস খেলছিল। তাই ঘটনার রহস্য উৎঘাটনে তাঁকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্চে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ জানায়, আটককৃত সুমন চাকমা ওরফে দেন্ডা (৩৭) পশ্চিম থানাপাড়া এলাকার মৃত কুসুম বিকাশ চাকমার ছেলে। ঘটনার পরদিন বুধবার তাঁকে আটক করা হয়। জেলা সদরে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন।

দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুস সামাদ আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার সময় নিহত মঞ্জুসহ ৫/৬ জন তাস খেলছিল। সেখানে অস্ত্রধারীরা গিয়ে ব্রাশফায়ার করে মঞ্জুকে হত্যা করে।

এ কারণেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ জরুরী। এছাড়া আরেটি সন্দেহকেও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে, তা হলো-তাস খেলার সাথে জড়িতরা কেউ পূর্ব পরিকল্পনা করে মঞ্জুকে খেলতে নিয়ে গিয়ে স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের খবর দিয়েছে কিনা; তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বৃহষ্পতিবার আটককৃতকে আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গতঃ সোমবার রাত ৯টার দিকে উপজেলা সদরের অদুরে পোমাংপাড়ার মঞ্জুর আলম (৩৫) কে বাড়ির পাশের পোমাং পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ব্রাশফায়ার করে হত্যা করা হয়। নিহতের শরীরে ২৩টি গুলির ছিদ্র ছিল। মঞ্জু পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠনের চাঁদা আদায়ের দায়িত্ব পালন করতো বলে এলাকায় জনশ্রুতি রয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী সুজাতা চাকমা বাদি হয়ে ৮/১০জন অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেছেন।