উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে রাঙামাটিতে প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগের যাত্রা শুরু

॥ আলমগীর মানিক ॥

দীর্ঘ চার বছর পর আবারো পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে মাঠে গড়ালো প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ। বুধবার নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে রাঙামাটিস্থ চিংহ্লামং মারী স্টেডিয়ামে ‘পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লিগ-২০১৮’ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। স্থানীয় পাহাড়ি তরুণীদের নৃত্যসঙ্গীত পরিবেশনসহ বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে লিগের উদ্বোধন করেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা-এনডিসি।

জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি একেএম মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনীতে আরও উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান তরুণ কান্তি ঘোষ, পুলিশ সুপার মো. আলমগীর কবির, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি ও রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য পরিকল্পনা প্রকাশ কান্তি চৌধুরী বরুণ দেওয়ান, এ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ মামুন, সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শফিউল আজমসহ অন্যরা। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে এবং জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সার্বিক সহযোগিতায় লীগের আয়োজন করা হয়।

বেলা দু’টায় শহরের রাঙামাটি চিংহ্লামং মারী স্টেডিয়ামে স্থানীয় ছদক ক্লাব বনাম উইংস্টার ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হয় এলিগের। লিগে রয়েছে বিদেশী খেলোয়াড়দের সরব উপস্থিতি।

উদ্বোধনী ম্যাচে বিদেশী খেলোয়াড়ের মধ্যে ছদক ক্লাব দলে ঘানার ফ্রাঙ্ক টিম টাউন, ইউসিফ ইসাহ্ ও নাইজেরিয়ার এগুয়েভেন উ ওয়েলুই এবং উইংস্টার ক্লাব দলে ঘানার কামারা খেলেছেন। এ ম্যাচে উইংস্টার ক্লাব একাদশকে ১-০ গোলে হারায় ছদক ক্লাব। খেলার প্রথমার্ধে ২০ মিনিটের মাথায় গোলটি করেছেন নাইজেরিয়ার এগুয়েভেন উ ওয়েলুই।

এর আগে উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নববিক্রম কিশোর ত্রিপুরা বলেন, ফুটবল বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। ফুটবলে রাঙ্গামাটির অনেক কৃতিত্ব ও ঐতিহ্য রয়েছে। রাঙামাটির কৃতি ফুটবল খেলোয়াড় প্রয়াত চিংহ্লামং মারী ছিলেন আন্তর্জাতিক ফুটবলার, যিনি ছিলেন তৎকালীন পাকিস্তান ফুটবল দলের অধিনায়ক। যে কারণে তার নামেই রাঙামাটি স্টেডিয়ামটি চিংহ্লামং মারী স্টেডিয়ামে নামকরণ করা হয়েছে। তার নামে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে বলেও ঘোষণা দেন বোর্ডের চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, ফুটবলে রাঙামাটির ঐতিহ্য ও কৃতিত্ব ধরে রাখতে এবং ক্রীড়ামোদীদের উৎসাহ জোগাতে উন্নয়নমূলক ও খেলাধূলার আয়োজনে আরও বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে হবে। এ জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড সম্ভবপর অর্থায়ন করবে।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক ও ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি একেএম মামুনুর রশিদ বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে এবার ফুটবল লিগ খেলা আয়োজন সম্ভব হয়েছে।

পুলিশ সুপার ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি মো. আলমগীর কবির বলেন, জেলার ক্রীড়ামোদী ও ফুটবলপ্রেমিদের মধ্যে প্রেরণা জাগাতে এ ফুটবল লিগের আয়োজন।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে এবং জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সহযোগিতায় এই ফুটবল লীগে রাঙামাটির ১২টি ক্লাব অংশগ্রহণ করবে।

দু’টি গ্রুপে চলমান এই লীগ আগামী ২৯ নভেম্বর শেষ হবার কথা রয়েছে। ফুটবল লীগে অংশগ্রহণকারী দলগুলো হচ্ছে- মোহামেডান ক্লাব, ছদক ক্লাব, রাইজিং স্টার ক্লাব, উইন স্টার স্পোর্টিং ক্লাব, ইয়ুথ স্পোর্টিং ক্লাব, প্রতিভাস ক্লাব, বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আব্দুল শুক্কুর ক্লাব সবুজ সংঘ ক্লাব, জেলা মুকুল ফৌজ সৃজন স্পোর্টিং ক্লাব ও আবহানী ক্রীড়া চক্র।

পার্বত্য চট্টগ্রামের তৃণমূল পর্যায়ের বিভিন্ন ফুটবল খেলোয়ারদেরকে তুলে এনে স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে উপস্থাপন করার লক্ষ্যেই পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ ২০১৮ এর আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আয়োজকবৃন্দ।