লক্ষ্মীছড়ি জোনের উদ্যোগে বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন!

॥ লক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি ॥

আধুনিক প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মানব সম্পদে পরিনত করার জন্য উপযুক্ত শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করতে লক্ষ্মীছড়ি জোনের সেনাবাহিনী উদ্যোগ নিয়েছে বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করার। ২৯ অক্টোবর পার্বত্য চট্টগ্রামের দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জেনারেল অফিসার কমান্ডিং এবং এরিয়া কমান্ডার চট্টগ্রাম এরিয়া, মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান লক্ষীছড়ি ও ফটিকছড়ি উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় অবস্থিত বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। তারই ধারবাহিকতায় ১৬ নভেম্বর শুক্রবার লক্ষীছড়ি জোন কমান্ডার লে: কর্ণেল মো. মিজানুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ তৌহিদুল ইসলাম বাবু, লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অংগ প্রু মারমা, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য আখতার উদ্দিন মাহমুদ পারভেজ, ফটিকছড়ি মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেবুন্নাহার মুক্তা, কাঞ্চননগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রশিদ চৌধুরী কাতেব এবং লক্ষ্মীছড়ি এলাকার মেম্বারসহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ হৃদয়বান এবং শিক্ষানুরাগী সকলকে আর্থিক ও অন্যান্য প্রশাসনিক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এই অগ্রগতিকে আরো ত্বরন্বিত করার জন্য সকলকে আহবান জানান।

উল্লেখযোগ্য, ইতোমধ্যেই পাঠদানে অনুমতি প্রদানের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে লিখিত পত্র দেয়া হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর মাস নাগাদ ভবন নির্মাণের প্রাথমিক কাজ সম্পন্ন হবে। আগামী বছরের জানুয়ারি মাসে বই বিতরণের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানান লক্ষ্মীছড়ি জোন কমান্ডার। এছাড়াও বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের কার্যক্রম চলমান রয়েছে যার বিজ্ঞপ্তি বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় ১৩ নভেম্বর ২০১৮ তারিখ ছাপানো হয়েছে বলে সূত্র জানান। এছাড়াও আগ্রহী প্রার্থীদের সুবিধার্থে ফেসবুক পেজের উল্লেখিত ঠিকানায় (fb.me/bmhs.edu) আবেদনপত্র জনিত সকল তথ্য নিয়মিতভাবে প্রচার করা হচ্ছে। সকলেরই সার্বিক সহায়তায় এবং সহযোগিতায় বাইন্যাছোলা-মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয় ৬ষ্ঠ হতে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত অতি শীঘ্রই সাফল্যের মুখ দেখবে বলে আশা করা হচ্ছে।