শান্তিচুক্তির ২১তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে মহালছড়িতে প্রীতি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত!

॥ মহালছড়ি প্রতিনিধি ॥

খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলায় মহালছড়ি আর্মি জোন এবং মহালছড়ি উপজেলা পরিষদের যৌথ উদ্যোগে পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২১ বছরপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত প্রীতি ফুটবল টূর্ণামেন্ট-এর ফাইনাল খেলা সম্পন্ন হয়েছে।

১৬ ডিসেম্বর রবিবার বিকাল ৩টার সময় মহালছড়ি মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যলয়ের খেলার মাঠে খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হামিদুল হক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, মহালছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল মুহাম্মদ মোসতাক আহমেদ, মহালছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান বিমল কান্তি চাকমা, মহালছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না নাসরিন উর্মি, মহালছড়ি উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাকলী খীসা, মহালছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান রতন কুমার শীল, মাইসছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান কাকলী খীসা, মহালছড়ি জোনের জোন উপ অধিনায়ক মেজর আতিকুল হক, মহালছড়ি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ক্যাচিংমিং চৌধুরী, মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন, মহালছড়ি বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সুনীল দাশ ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ প্রীতি ফুটবল টুর্ণামেন্টে ফাইনাল খেলায় যে দুইটি দল অংশ গ্রহন করেছে, মহালছড়ি ইউনিয়ন একাদশ বনাম মাইসছড়ি ইউনিয়ন একাদশ। খেলার চুড়ান্ত পর্যায়ে ৪-০ গোলে মাইসছড়ি একাদশকে হারিয়ে মহালছড়ি ইউনিয়ন একাদশ চ্যাম্পিয়ন হয়।
খেলায় প্রতিযোগীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরনকালে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে প্রধান অতিথি বলেন, খেলাধূলা মানুষের সম্প্রীতি ও বন্ধুত্ব বাড়ায়। খেলাধূলা মানুষকে মাদক ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ থেকে দূরে রাখে। এলাকায় শান্তি ও সম্প্রীতি স্থিতিশীল রাখার অংশ হিসেবে এ প্রীতিফুটবল টুর্ণামেন্ট আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ২ ডিসেম্বর ২১তম শান্তিচুক্তি বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে মহালছড়ি জোন ও মহালছড়ি উপজেলা পরিষদ এর আয়োজনে এ প্রীতি ফুটবল টূর্ণামেন্টে উপজেলার চারটি ইউনিয়নের মোট চারটি দল অংশগ্রহন করে এবং সর্বশেষ মহালছড়ি সদর ইউনিয়ন একাদশ ও মাইসছড়ি ইউনিয়ন একাদশ চুড়ান্তপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।