মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলা!

॥ ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার খয়েরতলা গ্রামে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলায় ২ জন গুরুত্বর আহত হয়েছে। হামলার শিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রসূলের স্ত্রী লালবানু, ছেলে লিটন হোসেনকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ছেলে লিটনের অবস্থা অবনতি হওয়ায় ডাক্তার তাকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে সিটি স্ক্যান করার পরামর্শ দিয়েছেন। কারণ রোগী বারবার বমি করছে এতে ডাক্তাররা সন্দেহে করছে তার মাথায় বড় রকমের আঘাত প্রাপ্ত হয়েছে।

ডাক্তারদের পরামর্শে তাকে শনিবার বিকেলে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার বেলা ৩ টার সময় হামলাকারীরা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটিকে লোহার রড, দা ও বাঁশের লাঠি দিয়ে বেদম মারধর করে। আহত মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী লালবানু জানান, আমার অসুস্থ স্বামী বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রসূল (৭৫) কে একটি সাদা কাগজে সই করতে বলে কয়েক জন। এরপর রাত ২ টার দিকে পকু ও তার দলবল আমাদের বাড়িতে একটা বোমার বিষ্ফোরন ঘটায় বলে অভিযোগ করেন। হামলাকারীরা মুক্তিযোদ্ধার ছেলে লিটন হোসেনকে মাথা ফাটিয়ে দেয় এবং তার স্ত্রী লালবানুকে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে আঘাত করে আহত করে। মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। থানায় অভিযোগ করার কারণে এই পরিবারটিকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধামকি দেওয়া অব্যাহত রেখেছে পকু এবং তার পরিবারের সদস্যরা।

বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধা এই পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে জানান। এ ব্যপারে কালীগঞ্জ থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি) ইউনুচ আলী জানান, সেখানে গোলযোগের খবর পেয়ে আমি নিজে ফোর্স নিয়ে সেখানে গিয়েছিলাম হামলাকারীদের বাড়িতে ঐ সময় কাউকে পাওয়া যায়নি। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে। হামলাকারীদের আটকের চেষ্ঠা করা হচ্ছে। হামলাকারীরা পালাতক থাকার কারণে এখনও আটক করা সম্ভব হয়নি।