ব্রেকিং নিউজ

দুর্গম এলাকায় শিক্ষকদের অনুপস্থিতির কারণে শিক্ষার মান দিন দিন হ্রাস পাচ্ছেঃ বৃষকেতু

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

রাঙ্গামাটিতে প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি করতে শিক্ষা কর্মকর্তাদের আরো বেশী কার্যকরী ভূমিকা রাখার আহবান জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। শিক্ষকদের স্কুলে অনুপস্থিতির কারণে দুর্গম এলাকার স্কুল গুলোতে শিক্ষার মান দিন দিন খারাপ হচ্ছে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, শিক্ষকরা স্কুল গুলোতে উপস্থিত না থাকা এবং ঠিক মতো ক্লাস না করার কারণে প্রাথমিক বিভাগে ফাউন্ডেশন মজবুত হচ্ছে না। এর জন্য শিক্ষা কর্মকর্তারা যদি প্রতিনিয়ত বিভিন্ন স্কুল গুলোতে মনিটরিং জোরদার করে তাহলে শিক্ষকরা নিয়মিত স্কুলে উপস্থিত থাকবে এবং শিক্ষার গুনগত মানও বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

৯ জানুয়ারী রাঙ্গামাটি জেলার প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নন সম্পর্কিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

রাঙ্গামাটি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ খোরশেদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের সচিবের একান্ত সচিব (উপ-সচিব) মোঃ মুস্তাফিজুর রহমান, রাঙ্গামাটি জেলা পিটিআই সুপারিনটেনডেন্ট সুলতানা পারভীর, রাঙ্গামাটি জেলা সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ রবিউল হোসেন বক্তব্য রাখেন। সভা পরিচালনা করেন সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ত্রিরতন চাকমা।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, সরকার পার্বত্য অঞ্চলের শিক্ষার মানোন্নয়নে নানা মুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সরকারের পাশাপাশি রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চতুর্থ শ্রেণীর বৃত্তি চালু করে শিক্ষার গুনগত মান বৃদ্ধির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দুর্গম এলাকা গুলোতে শিক্ষার হার বাড়াতে আমাদেরকে সকলকে আরো বেশী সচেষ্ট হতে হবে। শিক্ষার মান বৃদ্ধিতে শিক্ষা কর্মকর্তারা যদি এগিয়ে আসে তাহলে স্কুলের শিক্ষকদের নিয়মিত উপস্থিতি বাড়বে এবং ঠিক মতো ক্লাস করতে শিক্ষকদের আগ্রহ বাড়বে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

পরে সভায় শিক্ষকদের সাথে শিক্ষার মান বৃদ্ধিতে করনীয় সম্পর্কে রাঙ্গামাটি জেলায় কর্মরত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও সহকারী শিক্ষা অফিসারদের সাথে কথা বলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের সচিবের একান্ত সচিব (উপ-সচিব) মোঃ মুস্তাফিজুর রহমান।

সভায় রাঙ্গামাটি ১০ উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, সহকারী শিক্ষা অফিসার এবং শিক্ষা অফিসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।