বান্দরবানে রাজকীয় সংবর্ধনা পেলেন পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর

॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

বান্দরবান ৩০০ নং আসনের সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপিকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ মন্ত্রী হওয়ায় নাগরিক সংবর্ধনা দিয়েছে বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগ। শুক্রবার বিকালে নাগরিক সংবর্ধনায় যোগ দিতে পার্বত্য মন্ত্রী চট্টগ্রাম থেকে বান্দরবানে আসেন। এসময় চট্টগ্রামের কেরানীহাট থেকে বান্দরবানে আসার পথে পথে স্থানীয়রা ২শতাধিক মোটর সাইকেল শোভাযাত্রার মধ্যে দিয়ে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে বরণ করে নেন পাহাড়ের এই জনপ্রিয় নেতাকে।

বীর বাহাদুরকে বরণ করতে পথে পথে অসংখ্য তোড়ন নির্মান করা হয়। শহরের প্রধান প্রধান সড়কে আওয়ামী লীগ ও হাজার হাজার স্থানীয়রা দাঁড়িয়ে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে বরণ করে নেন। এসময় মন্ত্রীকে অনেকে ফুলের মালা পড়িয়েও বরণ করে। বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে শুক্রবার জেলা শহরের রাজার মাঠে বিকাল ৫টার দিকে তিনি সংর্বধনার মঞ্চে উপস্থিত হন। এসময় রাজার মাঠে লাল গালিচার পাশাপাশি ফুল ছিটিয়ে তাকে বরণ করে নেন নেতাকর্মীরা। জেলার ৭টি উপজেলা থেকে আওয়ামী লীগের সহযোগী বিভিন্ন সংগঠনের নেতাসহ স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লার সভাপতিত্বে উক্ত সংবর্ধনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য শফিকুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা কাজল কান্তি দাশ, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রহিম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, পার্বত্য জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মংক্যচিং চৌধুরী, ,জেলা পরিষদের সদস্য ক্যসা প্রু, লক্ষীপদ দাশ, জেলা জাতীয় পাটির সভাপতি ক্যশৈঅং মার্মাসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, তিন পার্বত্য জেলার (বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি) মধ্যে ১৯৯৭ সালের পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি অনুযায়ী ১৯৯৮ সালে গঠিত পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে খাগড়াছড়ির সাংসদ কল্পরঞ্জন চাকমাকে মন্ত্রী করা হয়েছিল। এরপর থেকে পার্বত্য জেলার সবাই ছিলেন উপমন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে। এই প্রথম গত ৭ জানুয়ারি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসাবে বীর বাহাদুর উশৈসিংকে এমপিকে দীর্ঘ ১৮ বছর পর পূর্ণমন্ত্রী করা হয়।