চন্দ্রঘোনায় ব্রাশ ফায়ারে ২ যুবক হত্যাকান্ডের ঘটনায় হরতাল পালন করছে আ’লীগ!

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলাধীন কারিগর পাড়ায় মংশিনু মারমা ও জাহিদুল ইসলাম জাহিদকে নির্মমভাবে হত্যার ঘটনায় তাদের নিজেদের দলীয় কর্মী দাবী করে চন্দ্রঘোনার রাইখালী ইউনিয়নে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করছে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি চেয়ারম্যান ও কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম বেবী।

তিনি জানান, উক্ত দুজনই আমাদের দলীয় কর্মী। সন্তু লারমা নেতৃত্বাধীন জেএসএস’র সন্ত্রাসীরা এবং তাদের সাথে জোটবাধা পার্বত্য চুক্তি বিরোধী সংগঠনের সন্ত্রাসীরা মিলে এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে ধারণা করছে আওয়ামীলীগ। মংশিনু মারমা ও জাহিদুল ইসলাম জাহিদ আমাদের এই দুইকর্মীকে হত্যার প্রতিবাদে দলীয় কর্মীরা হরতাল পালন করছে এবং এই হরতালের মাধ্যমে আমরা এই হত্যাকান্ডের বিচার দাবী করছি।

উল্লেখ্য, আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে ৪ ফেব্রুয়ারী রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলাধীন কারিগর পাড়ায় দুই যুবককে গুলি করে হত্যা করে আঞ্চলিকদলীয় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা। নিহত অপর যুবক জাহিদ ও মংশিনু উভয়েই ভালো বন্ধু ছিলো। তারা উভয়েই একসাথে বাজারে গেলে আকস্মিক হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। জাহিদ সরকারদলীয় ছাত্র সংগঠনের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলো। এদিকে বেলা দুইটার সময় ঘটনাটি সংঘঠিত হওয়ার পর থেকেই নিহতদের লাশ রাস্তার উপর পড়ে থাকলেও ভয় আর আতঙ্কে স্থানীয়রা তাদের লাশ উদ্ধারে এগিয়ে আসেনি।