ব্রেকিং নিউজ

রাঙ্গামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী সমিতির দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ!

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

৬ষ্ঠ ব্যবস্থাপনা কমিটির অদক্ষতা, অযোগ্যতা, অনিয়ম, দূর্নীতি, সমিতির তহবিল ও ব্যাংক একাউন্ট হতে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে অভিযোগ করে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছে রাঙ্গামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমূখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের এক পক্ষের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে শহরের বনরূপাস্থ রেইনবো রেস্তেরায় আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমূখী সমবায় সমিতি লিমিটেড এর উপদেষ্টা ও সদস্য আব্দুল ওয়াদুদ, সাবেক সহ-সভাপতি আবদুল করিম (বালি), সাবেক সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন পিয়ারু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক, সদস্য হাজী মো. লোকমান হোসেন, এনএম জাহাঙ্গীর প্রমূখ।

এদিকে সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এইপক্ষ অভিযোগ করে বলেন, ৬ষ্ঠ ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠিত হওয়ার পর অর্থাৎ বিগত ১৪ মাসের হিসাব নিজেদের খেয়াল-খুশিমতোভাবে মিলানোর চেষ্টা করে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

গত বছরের ২৩ ডিসেম্বের উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা তদন্ত করতে গেলে সমিতির জমা খরচের খাতা পাওয়া যায়নি। কেবল মাত্র ছোট একটি কাঠের হিসাবের খাতায় সামান্য হিসাব লেখা আছে যাতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কোন স্বাক্ষর নেই। সমবায় কর্মকর্তা তদন্ত করার কারণে তদন্ত কর্মকর্তাকে দূর্নীতিগ্রস্থ বলা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট এবং হয়রানি করা ছাড়া কিছু নয় বলে অভিযোগ করা হয়েছে সাংবাদিক সম্মেলনে।

লিখিত বক্তব্যে আরও উল্লেখ করা হয়, সমবায় কর্মকর্তা তদন্তকালে আয়-ব্যয়ের হিসাব ছিল না। রেজুলেশন খাতায় মাসিক হিসাবের অনুমোদন নাই, সবকিছু রাতারাতি মিলানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে। নির্বাচিত হওয়ার এক মাসের মাথায় পরিষদের কাউকে না জানিয়ে কোন রেজুলেশন না করে ব্যাংক থেকে সভাপতি ও সম্পাদক স্বাক্ষরে ৫ লাখ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করে এবং প্রতিটি ফার্ণিচার আইটেম থেকে ২শ’ টাকা করে অতিরিক্ত চাঁদা আদায় করে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ করেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৪ ফেব্রুয়ারী সোমবার সকালে কাঠালতলী সমিতির নিজস্ব ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনে সভাপতি আমিনুল ইসলাম শামীম পাল্টা অভিযোগ করে বলেছিলেন, রাঙ্গামাটি জেলা সমবায় ও উপজেলা সমবায় কর্মকর্তারা দূর্নীতিগ্রস্থ হয়ে রাঙ্গামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ সমবায় সমিতি লিমিটেড ২০১৭ সালের নির্বাচনে পরাজিত কয়েকজন সদস্যদের সাথে যোগসাজেস করে সমিতি ধ্বংস করার পাঁয়তারা করছে। তিনি আরও অভিযোগ করেন, রাঙ্গামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের ২০১৭ সালের নির্বাচনে পরাজিত হয়ে কিছু কুচক্রী মহল সমিতির নিরীহ ও শান্তিপ্রিয় সদস্যদের ভুল ও উস্কানিমূলক তথ্য প্রদান করে সমিতিকে ভাঙ্গণের মুখে ফেলার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।