রাঙামাটিতে একে-৪৭’র গুলিসহ জেএসএস ইউপিডিএফ’র ৩ সক্রিয় সদস্য আটক


॥ আলমগীর মানিক ॥
পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে যৌথবাহিনীর পৃথক অভিযানে আঞ্চলিকদল জেএসএস-ইউপিডিএফ মূল দলগুলোর সশস্ত্র শাখার সক্রিয় দুই সদস্যসহ একজন চাঁদা কালেক্টরকে আটক করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে শহরের অন্যতম বানিজ্যিক এলাকা বনরূপা থেকে ২ জন এবং নানিয়ারচর উপজেলা থেকে একজনকে আটক করা হয়েছে বলে নিরাপত্তা বাহিনীর উদ্বর্তন কর্তৃপক্ষসহ কোতয়ালী থানা পুলিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

কোতয়ালী থানার এসআই মোবারক হোসেন জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাঙামাটি শহরের বনরূপার বনরূপা ডায়াগণষ্টিক সেন্টারের নীচ থেকে দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো: সুপ্রকাশ চাকমা (৫২) পিতাঃ দয়ামোহন চাকমা, সাংঃ মহালছড়ি ক্যায়াংঘাট, পোষ্ট +থানাঃ মহালছড়ি। অপরজন হলো-সুচিত রঞ্জন চাকমা, (৪০) পিতাঃ মৃত লবিন্দ্র চাকমা, সাংঃ রকবিরছড়া, পোষ্টঃ ভূষনছড়া, থানাঃ বরকল, জেলাঃ রাঙামাটি।

এসময় তাদের কাছ থেকে একে-৪৭ রাইফেলের ৭ রাউন্ড তাজা গুলিসহ নগদ ৬ হাজার ২৫৬ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃতরা উভয়েই সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি জেএসএস’র সশস্ত্র শাখার সক্রিয়কর্মী বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

অপরদিকে পার্বত্য চুক্তি বিরোধী সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর এক চাঁদাবাজকে চাঁদা আদায়ের নগদ টাকাসহ হাতেনাতে আটক করে রাঙামাটির নানিয়ারচর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে যৌথবাহিনী কর্তৃপক্ষ। আটককৃতের নাম: বিমান খীসা ওরফে অনিমেষ খীসা (৩৯), পিতাঃ রাজবিহারী খীসা, গ্রামঃ রাম হরিপাড়া, (০৩ নং বুড়িঘাট ইউনিয়ন). থানা+ পোঃ নানিয়ারচর উপজেলা।

থানা পুলিশ জানিয়েছে, আটককৃত অনিমেষ ইউপিডিএফ এর রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। সে তার সংগঠনের নামে স্থাণীয় বিভিন্ন ব্যবসায়ি ও এলাবাসীর কাছ থেকে অস্ত্রের হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক চাঁদা আদায় করে আসছে দীর্ঘদিন থেকে।

স্থানীয়দের কাছ থেকে গোপনে প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে নানিয়ারচরের রামহরি পাড়ায় অভিযান পরিচালনা করে অনিমেষকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে চাঁদাবাজির মাধ্যমে সংগৃহীত নগদ ১২ হাজার ৩৪৫ টাকা। ইউপিডিএফ মূলদলের চাঁদা আদায়ের হিসেবের বই ০১ টি, চাঁদার রশিদ বই ০৩ টি, জাতীয় পরিচয়পত্র ০১ টিসহ একটি মোবাইল সেট পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে যৌথবাহিনী কর্তৃপক্ষ।