বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস এর ১৭তম কেন্দ্রীয় সম্মেলন উপলক্ষে মানিকছড়িতে বর্ণাঢ্য র‌্যালী

॥ আবদুল মান্নান – মানিকছড়ি ॥

বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস এর ১৭তম কেন্দ্রীয় সম্মেলন উপলক্ষে মানিকছড়ি গিরিমৈত্রী সরকারি ডিগ্রি কলেজ মাঠে আয়োজিত দিনব্যাপি কর্মসূচীতে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মংথোয়াইচিং মারমা উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং সভাপতিত্বে করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অংসাইম্যা মারমা।

১ মার্চ সকাল সাড়ে ১০টায় দেশের বিভিন্ন উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত এবং কর্মযজ্ঞে নিয়োজিত হাজারো মারমা যুবক-যুবতীরা নিজেদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্যানারে বর্ণাঢ্য র‌্যালিতে অংশগ্রহন করেন। র‌্যালিটি কলেজ মাঠ থেকে শুরু হয়ে উপজেলা সদর ঘুরে আবার অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে শেষ হয়। বিকাল সাড়ে ৩টায় অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ২৯৮নং খাগড়াছড়ির সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা পরিষদ সদস্য এম.এ. জব্বার, উপজেলা চেয়ারম্যান ¤্রাগ্য মারমা, উশেপ্রু মারমা, খাগড়াছড়ি উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান বাসুরী মারমা, মানিকছড়ি সরকারি কলেজ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মংচাইঞো মারমা, খাগড়াছড়ি জেলা মারমা উন্নয়ন সংসদের সভাপতি মংপ্রু চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো.তাজুল ইসলাম বাবুল, ইউপি চেয়ারম্যান মো.সফিকুর রহমান ফারুক, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. জয়নাল আবেদীন,সাধারণ সম্পাদক মো.মাঈন উদ্দীন,উপজেলা মারমা উন্নয়ন সংসদ সভাপতি মংশেপ্রু মারমা প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে মারমা নেতৃবৃন্দরা বলেন, তিন পার্বত্য জেলার মারমা সম্প্রদায়ের নিজস্ব ভাষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি, ইতিহাস-ঐতিহ্য সমুন্নত রাখার লক্ষে ১৯৮৯ সালে এ সংগঠনের আত্মপ্রকাশ। পাহাড়ে উন্নয়নে নামে ভূমি বেদখল, আদিবাসী নির্মূলের ষড়যন্ত্র ও জাতিগত নিপীড়নের বিরুদ্ধে ছাত্রসমাজকে আরো প্রতিবাদী হওয়ার আহব্বান করেন বক্তারা। এছাড়া তাঁরা বলেন, উপজেলায় উপজাতী ছাত্রাবাস নির্মাণের জোরদাবী জানান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা(এম.পি)বলেন, সংগঠনকে গতিশীল করতে নিজস্ব ভাষা,শিক্ষা ও সংস্কৃতির প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। সংগঠনের মাধ্যমে ঐক্যবদ্ধ থাকলে যে কোন কঠিন কাজ বাস্তবয়ন করা সম্ভব। তিনি আরো বলেন, দেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে মারমা সম্প্রদায়ের হয়ে তৎকালীন মংসার্কেল যে অবদান রেখেছিলেন তা স্মরণীয়। তাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করলে আমরা একদিন পৃথিবীতে উন্নত জাতি হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবো। তাই শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে।
আলোচনা সভা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলছিল। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস কাউন্সিলের নতুন কমিটি ঘোষণা করার কথা রয়েছে।