বাঘাইছড়িতে ভোট যুদ্ধ জেএসএস বনাম জেএসএসঃ ঋণ শোধ করতে চায় আ’লীগ!

॥ ওমর ফারুক সুমন – বাঘাইছড়ি ॥

১৮ মার্চ আসন্ন ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে বাঘাইছড়িতে মাঠ গরম করছে পাহাড়ের আঞ্চলিক দুই রাজনৈতিক  দল জেএসএস (সন্তু) ও জেএসএস (এমএনলারমা)  সমর্থিত দুই হেভী ওয়েট প্রার্থী বড় ঋষি চাকমা এবং সুদর্শন চাকমার কর্মী সমর্থকরা,  দুজনেই পাহাড়ের দুই জনপ্রিয় আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল জেএসএস এর সক্রিয় নেতা। বাঘাইছড়ি উপজেলা জেএসএস(সন্তু) দলের  সাধারণ সম্পাদক ও সদ্য বিদায়ী উপজেলা চেয়ারম্যান  বড়ঋষি চাকমা দোয়াত কলম প্রতীক ও জেএসএস(এমএনলারমা) দলের কেন্দ্রীয় ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক ও বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সুদর্শন চাকমা ঘোড়া প্রতীক নিয়ে এবারের  নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। দুুজনেই জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।   প্রতিবারের ন্যায় এবার কিছুটা ব্যাতীক্রম ও প্রতিদ্বন্দ্বিতা কম হলেও নির্বাচনের মাঠে দুই পক্ষেরই রয়েছে সরব উপস্থিতি।

আঞ্চলিক রাজনৈতিক বেড়াজালে জাতীয় কোন দল নির্বাচনে না এলেও পছন্দের দলের প্রতি পরোক্ষভাবে সমর্থন রয়েছে অনেকটাই। পাহাড়ের নির্বাচনে দলের চেয়ে ব্যাক্তিকেই বেশী প্রাধান্য দেয়া হয়ে থাকে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামীলীগ পার্থীর জয়ের ব্যাপারে মাঠে ও মাঠের বাহিরে জোড়ালো ভূমিকা পালন করতে দেখা গিয়েছে জেএসএস এমএন লারমা দলের কর্মী সমর্থকদের, সে হিসেবে আওয়ামীলীগ ও ভোটের মাধ্যমে ঋণ শোধ করতে চায়। তাই জেএসএস সংস্কার হিসেবে পরিচিত  দলের প্রার্থী সুুুদর্শন চাকমার ঘোড়া প্রতীককেই এগিয়ে রাখছেন আওয়ামিলীগ নেত্রীবৃন্দ, তাছাড়া ইউপিডিএফের একাংশের সমর্থনও রয়েছে সুদর্শনের ঘোড়া প্রতীকে।
সরকার দলীয় সমর্থন না পেলেও পিছিয়ে নেই জেএসএস সন্তুু লারমার প্রার্থী দোয়াত কলম প্রতীকের বড়ঋষি চাকমা। পাহাড়ের অন্যতম পরাশক্তিশালী আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউপিডিএফ (প্রসীত) এর সমর্থন নিয়ে ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে বলে জানা যায়। প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও দুইদলের প্রচারণা চোখে পড়ার মত। জাতীয় রাজনৈতিক দলগুলোর কোন প্রার্থী মাঠে না থাকায় সাধারণ ভোটারগণ মতামত দিতে গিয়ে বেশ হিসেব নিকেশ করেই কথা বলছেন। আপাতত কাউকেই ছোট করে দেখা সম্ভব হচ্ছে না, তাই সঠিক সমীকরণ জানতে হলে অপেক্ষা করতে হবে ১৮ তারিখ বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত।
আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোর জটিল হিসেব-নিকেশ এর কারণে প্রশাসনও অন্য যেকোন সময়ের তুলনায় তৎপর, যেকোন ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে শুরু থেকেই মাঠে রয়েছে আইন-শৃংখলাবাহিনী তাই শতভাগ সুন্দর সুষ্ঠু নির্বাচনে আশাবাদী সর্বস্তরের জনসাধারণ।
এছাড়া পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন ৭ জন নারী দুইজন সুমিতা চাকমা প্রজাপতি প্রতীকে, সাগরিকা চাকমা ফুটবল প্রতীকে এবং পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান বাঙালী দুইজন মোঃ আবু কাইয়ুম টিউবওয়েল প্রতীকে,  মোঃ আনোয়ার হোসেন টিয়াপাখি প্রতীকে, সমিরণ চাকমা বই প্রতীকে, রিপন চাকমা চশমা প্রতীকে, অমর শান্তি তালা প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছে। ৬৮ হাজার ভোটার নিয়ে রাঙামাটি শহরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা বাঘাইছড়ি, সবার মুখে একটাই প্রশ্ন কে হচ্ছে ভবিষ্যৎ উপজেলার চেয়ারম্যান। আর নিরবিচ্ছিন্ন ভোট গ্রহণের জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে ৩৮ টি কেন্দ্র। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে উতসাহ-উৎকন্ঠা ততই বাড়ছে।