জুরাছড়িতে নানান প্রতিশ্রুতির মধ্য দিয়ে ব্যস্ত সময় পাড় করছেন প্রার্থীরা

॥ জুরাছড়ি প্রতিনিধি ॥

আগামী ১৮ই মার্চ ২০১৯ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জুরাছড়ি উপজেলার বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ সমর্থীত নৌকা প্রতীক প্রার্থী রুপকুমার চাকমা এবং পার্বত্য চট্রগ্রাম জনসংহতি সমিতি সমর্থৗত সতন্ত্র প্রার্থী সুরেশ কুমার চাকমা আনারস প্রতীক নিয়ে পাহাড়ের প্রত্যন্ত এলাকায় ভোটের প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী রুপকুমার চাকমা বলেন, আগামী ১৮ ই মার্চ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে, বর্তমান সরকার যে উন্নয়নের চমক দেখিয়ে যাচ্ছে তা দেখে জুরাছড়ি উপজেলার জনগণ আমাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবে। তাকে এলাকার জনগণ নির্বাচিত করলে জুরাছড়ি উপজেলায় উন্নয়নের চমক দেখাবেন বলে প্রচারণার সময় জনগণকে আশ্বাস দেন রূপকুমার।

পার্বত্য চট্রগ্রাম জনসংহতি সমিতি সমর্থীত স্বতন্ত্র প্রার্থী সুরেশ কুমার চাকমা থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, বিগত ২নং বনযোগীছড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে উক্ত ইউনিয়নে অনেক দৃশ্যমান উন্নয়ন করেছিলাম। সুরেশ কুমার চাকমা আরো বলেন, বিগত দিনের আমার উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড দেখে জনগণ আমাকে নির্বাচিত করবে শতভাগ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।উল্লেখ্য তিনি জানান, চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে এলাকার শান্তি প্রতিষ্ঠা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সুষম উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়া হচ্ছে আমার মূল লক্ষ্য। এজন্য আগামী ১৮ ই মার্চ ২০১৯ উপজেলার জনগণ যাহাতে নিজেদের প্রার্থীকে নিরাপদে ভোট প্রদান করতে পারেন সেজন্য সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

উপজেলার কয়েকজন ভোটার নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, নির্বাচনের সময় আসলে প্রার্থীরা নানান প্রতিশ্রুতি দিয়ে থাকেন কিন্তু নির্বাচনের পর সবকিছু ভুলে যান। তাই এবারের নির্বাচনে যে ব্যক্তি এলাকার উন্নয়ন ত্বরানিত্ব করতে পারবে যাকে সুখে দুঃখে কাছে পাওয়া যাবে তাকেই ভোট দেবো।