খাগড়াছড়িতে ভোট বর্জনের হিড়িক: তিন কেন্দ্রের নির্বাচন স্থগিত!

॥ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥

খাগড়াছড়ির ৮ উপজেলায় বিক্ষিপ্ত ঘটনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ভোট গ্রহন। পানছড়ি উপজেলা পাইল্টফার্ম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,লোগাং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ও পানছড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রার্থী সর্মথকদের মাঝে বিশৃঙ্গখলা সৃষ্টি হওয়ায় তিনটি কেন্দ্রই স্থগিত করেছে নির্বাচন অফিসার।

এছাড়াও আওয়ামীলীগ প্রার্থী মো: কাশেমমের বিরুদ্ধে জাল ভোটের অভিযোগ তুলে দীঘিনালায় জেএসএস (এমএন লারমা) সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রফুল্ল কুমার চাকমা,ভাইস চেয়ারম্যান সমানন্দ চাকমা ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান গোপা দেবী চাকমা ভোট বর্জন করেছে।
অপরদিকে মহালছড়িতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতি (সংস্কার গ্রুপ) সমর্থিত প্রার্থী বিমল কান্তি চাকমার নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের বিরূদ্ধে কেন্দ্র দখল ও ভোট কারচুপির অভিযোগে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ক্যাজাই মারমা, স্বতন্ত্র প্রার্থী হুমায়ুন কবির এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী কাকলী খীসা,নারী ভাইস চেয়ারম্যান ভুমিকা ত্রিপুরা ও শেফারী আক্তার ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। সোমবার দুপুরে তারা এই ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

সকালে ভোটার উপস্থিতি কম থাকলে দুপুরের পরে কিছুটা ভোট উপস্থিতি বেড়ে যায়। এছাড়া খাগড়াছড়িতে শানে আলম ও মানিকছড়ি উপজেলায় মো: জয়নাল আবেদীন আগেই বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হওয়ায় এ দু উপজেলায় ভোটের তেমন কোন উত্তাপ নেই।

খাগড়াছড়ি জেলায় চেয়ারম্যান পদে ২১ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৮ জন এবং নারীভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৯জন প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। ১৭৫ টি কেন্দ্রেম মধ্যে ১৫৭টি কেন্দ্রকে অধিক গুরুত্বপূর্ন বিবেচনা করে পুলিশ, আনসার, বিজিবি র‌্যাব সেনাবাহিনী ও মোতায়েন রয়েছে। খাগড়াছড়ি জেলার ৮ উপজেলায় মোট ভোটার রয়েছে ৪১২৮৫৪ তার মধ্যে পুরুষ ভোটার ২১১৭১৬ এবং নারী ভোটার ২০১১৩৮। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত জেলার কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।