নববর্ষ বরণে পলওয়েল পার্কে পুলিশের মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় মানুষের ঢল

॥ আলমগীর মানিক ॥

বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দের পহেলা বৈশাখকে বরণের অংশ হিসেবে রাঙামাটির প্রসিদ্ধ বিনোদন কেন্দ্র পলওয়েল পর্যটন পার্কে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাঙামাটি জেলা পুলিশের ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত এই বিনোদন কেন্দ্রটিতে রোববার সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে হাজারো মানুষ তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে উপস্থিত হয়েছিলো।

মনোজ্ঞ এই সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর-পিপিএম এবং তার সহধর্মীনি পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি পুনাক এর সভানেত্রী নুরিয়া পারভীন। অনুষ্ঠানের শুরুতে রাঙামাটি জেলা পুলিশ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘এসো হে বৈশাখ, এসো এসো…..’ এই গানের মাধ্যমে পহেলা বৈশাখকে বরণ করে নেয়। এরপর একে একে দলীয় সংগীত, নৃত্য, গান, কৌতুক, সুন্দর ও সাবলীল উপস্থাপনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানকে প্রাণবন্ত করে রাখে পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা।

অনুষ্ঠানে সমাপনি বক্তব্য পুলিশ সুপার আলমগীর কবির পুলিশ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠীর ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং পুলিশ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠীসহ সকলকে ধন্যবাদ জানান পহেলা বৈশাখের অসাধারণ একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপহার দেওয়ার জন্য। এসময় পুলিশ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠীকে নিয়মিত সাংস্কৃতিক চর্চার পাশাপাশি নতুনদেরকে সাংস্কৃতিক চর্চার সুযোগ করে দেওয়ার আহ্বান জানান।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোঃ ছুফি উল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কাপ্তাই সার্কেল) মোঃ জুনায়েত কাউছার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মোঃ সিরাজুল ইসলামসহ জেলা পুলিশের উধ্বর্তন অফিসার ও সদস্যগণ।

বিগত বছরগুলো থেকে এবছর আরো ব্যাপক পরিসরে বিভিন্ন রাইডসহ বিনোদনের আকর্ষণীয় নানা মাত্রা নিয়ে গড়ে উঠা রাঙামাটি পলওয়েল পার্কটি ইতিমধ্যেই রাঙামাটিবাসীসহ অত্রাঞ্চলে আগত পর্যটকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

রাঙামাটির পুলিশ সুপার আলমগীর কবীরের একান্ত আগ্রহে পলওয়েল পার্কটি নতুন করে প্রাণ ফিরে পাওয়ায় রাঙামাটির বিনোদন জগতে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে। প্রতিদিন বিকেলে রাঙামাটির বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এই পলওয়েল পার্কে প্রকৃতির সাথে একান্ত সময় কাটাতে জড়ো হচ্ছে কয়েক’শ বিনোদন প্রিয় নারী-পুরুষ।