ডাস্টবিনে অনীহা রাঙ্গামাটির শহুরে বাসিন্দাদের!

॥ ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি ॥

রাঙ্গামাটি শহরের তবলছড়ি জামে মসজিদ সংলগ্ন পৌর ডাষ্টবিন সরানোর দাবি উঠেছে এলাকার মানুষের মুখে। সরানো সম্ভব না হলে র্দূগন্ধ মুক্ত পৌর ডাষ্টবিন স্থাপন প্রয়োজন বলে এলাকার মানুষ মনে করছে।

জানা গেছে, তবলছড়ি জামে মসজিদ সংলগ্ন সাব পোষ্ট অফিসের নিকটে একটি খোলা পৌর ডাষ্টবিন রয়েছে। এতে নানা দিক হতে থানা রোডও মসজিদ কলোনী এবং অফিসার্স কলোনী হতে নানা আর্বজনা রাখা হয়। ফলে নিকটস্থ পোষ্ট অফিসে ডাক সেবা গ্রহনকারী মানুষ উক্ত ডাষ্টবিনের র্দূগন্ধে আক্রান্ত হচ্ছে প্রতিদিন।

সাব পোষ্ট মাষ্টার জানান, এখানে আসা ডাক সেবা গ্রহনকারী মানুষ পৌর ডাষ্টবিনের ছড়ানো দূর্গন্ধের অভিযোগ করে প্রতিদিন। উক্ত ডাকঘর নারী পুরুষ সকলেই চিঠি রেজিঃ ও মানি অর্ডার সহ সেভিংস টাকা উত্তোলন করতে এসে দূর্গন্ধের স্বীকার হচ্ছে। এতে ডাক বিভাগের সেবা কাজেও বিঘ্নতা সৃষ্টি হচ্ছে। দূর্গন্ধের কারনে অনেকের বমির ভাব হয় এমন অবস্থাও আমাকে অবলোকন করতে হয়। তাই পৌর ডাষ্টবিন সরানোর ব্যবস্থা হোক নতুবা বিকল্প ব্যবস্থা নিলে পরিবেশ দূর্গন্ধ মুক্ত হতে পারে।

উল্লেখ্য যে, থানা রোডে পৌর ডাষ্টবিন ছিল তাহাও একই কারনে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। শহরের যেকোন স্থানে উন্মুক্ত ডাষ্টবিন স্থাপন করা হলেই তা কিছুদিন পর এলাকায় মানুুষ সরানোর কথা পুরোনো বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। এই বিষয়ে সংশ্লিষ্ট পৌর কাউন্সিলর সহ পৌর কর্তৃপক্ষ ভেবে দেখা প্রয়োজন। বলা যেতে পারে উক্ত পৌর ডাষ্টবিন স্থাপন করাতে এলাকার উপকার হলেও দূর্গন্ধের কারনে তা এখন এলাকার মানুষের নিকট গ্রহন যোগ্যতা হারিয়ে যাচ্ছে দিনদিন।