জমি নিয়ে বিরোধ : রাঙামাটিতে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

রাঙামাটিতে বাস্তুভিটার জমি নিয়ে প্রতিবেশির মধ্যে বিরোধ চরমে রুপ নিয়েছে। শহরেরই পৌর এলাকার বাসিন্দাদ্বয় হলেন- বয়োঃবৃদ্ধ স্থানীয় ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হোসেন ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতি ছেড়ে বাঙ্গালী সংগঠন পার্বত্য নাগরিক পরিষদের নেত্রী বেগম নূর জাহান। তারা পরস্পরের বিরুদ্ধে তুলছেন বিভিন্ন অভিযোগ। নূর জাহানের বিরুদ্ধে ব্যাপক হয়রানি-প্রাণনাশসহ নানা হুমকির অভিযোগ করেছেন তার বিল্ডিং লাগোয়া অপর বিল্ডিংয়ের বাসিন্দা বয়োবৃদ্ধ ব্যবসায়ি মোহাম্মদ হোসেন। বুধবার দুপুরে পৌরসভার সামনে প্রধান সড়কের পাশে নিজ বাড়িতে মোঃ হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন। তবে প্রতিবেশি হোসেন কর্তৃক আনীত অভিযোগ সম্পূর্নরূপে অস্বীকার করেছেন নারী নেত্রী নুরজাহান।

বুধবার সকালে ওই এলাকার নিজ বাসভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মোহাম্মদ হোসেন বলেছেন, ওই নূর জাহান আমাকে হয়রানি করার উদ্দেশে এবং আমার জায়গা বেদখলে নিতে আদালতে আমার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন। বিভিন্ন প্রভাবশালী ব্যক্তি ও সংস্থার কর্মকর্তাদের দিয়ে ডেকে নিয়ে আমাকে নানাভাবে মানসিক চাপ দিচ্ছেন। আমি বয়স্ক মানুষ। ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারি না। তারপরও ওই নূর জাহান প্রতিনিয়ত বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন আমাকে।

রাজনৈতিক প্রভাব খাটাচ্ছেন। আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দিচ্ছেন। নূর জাহানের হুমকিতে বর্তমানে আমি চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি। তার হুমকিতে ভীত-সন্ত্রস্ত হওয়ায় রাঙামাটি কোতোয়ালি থানায় একটি অভিযোগ (নম্বর ৩৩১, তারিখ: ৩/৬/১৯) দায়ের করেছি। অভিযোগটি প্রত্যাহারের জন্যও নানাভাবে চাপ প্রয়োগ করছেন নূর জাহান। আমি তার হয়রানি, হুমকি ও চাপ থেকে মুক্তি পেতে চাই।

এদিকে এর আগে গত ৫ই মে’ করা এক সংবাদ সম্মেলনে মোহাম্মদ হোসেনের হুমেিক চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন বলে দাবি করেছিলেন, বেগম নূর জাহান। বর্তমানে নিজেকে পার্বত্য নাগরিক অধিকার ফোরামের কেন্দ্রীয় নেতা বলে পরিচয় দিয়েছেন নূর জাহান। বেগম নূর জাহান বলেন, আমার জায়গা বেদখলে নিতে দীর্ঘদিনের চেষ্টায় মরিয়া মোহাম্মদ হোসেন। এরই মধ্যে আমার কিছু জায়গা দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করেছেন তিনি। আমার জায়গাটি দখলে নিতে আমার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে যাচ্ছেন। এতে আমি চরম হয়রানির শিকার হচ্ছি।

এদিকে মোঃ হোসেনকে হত্যার হুমকি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নারী নেত্রী বেগম নুর জাহান প্রতিবেদককে মুঠোফোনে জানান, আমার স্বামী নাই। একমাত্র ছেলেটিও চট্টগ্রামে থাকে। আমার একটি মেয়েকে সাথে নিয়ে আমি বসবাস করছি। আমার অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে মোঃ হোসেন বিগত কয়েক বছর যাবৎ আমার জায়গাটির অনেকাংশ দখল করে নিয়েছেন। তার ব্যাপারে প্রশাসনের সকল স্তরে সকলেই জানে। প্রশাসনের তদন্তে নিজের আসল রূপ প্রকাশ হওয়ার সময় যখন সন্নিকটে, এটি বুঝতে পেরেই সে এখন সাংবাদিক সম্মেলন করে ঘটনাটিকে ভিন্ন দিকে প্রবাহের চেষ্ঠা করছে বলেও অভিযোগ করেছেন নুর জাহান।