ব্রেকিং নিউজ

হাটহাজারীতে পানিবন্দী সহস্রাধিক পরিবারঃ নৌকাই একমাত্র যোগাযোগের মাধ্যম!

॥ হাটহাজারী প্রতিনিধি ॥

টানা বর্ষণে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড রাস্তাঘাট,মসজিদ,মাদ্রাসা,ঘর বাড়ি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টান পানিতে ডুবে গেছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে হাজার হাজার মানুষ,গবাদী পশুসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের শতাধিক পুকুর ডুবে গেছে। পৌর সদরের সাথে উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। গ্রামে মানুষ গুলো নৌকা সম্পান নিয়ে হাটবাজারে আসা যাওয়া করছে। পাহাড়ী ঢলে হালদা নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উপজেলার অধিকাংশ ছড়ার ভাঙন দেখা দিয়েছে। ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বৃষ্টিার পানি ও পাহাড়ী ঢলে মানুষ দিশেহারা হয়ে গেছে। অনেকেই আশ্রয় নিয়েছে স্কুল কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানে। গৃহহীন হয়ে পড়েছেন নি¤œাঞ্চলের মানুষ। দুর্ভোগে পড়েছে খেতে খাওয়া দরিদ্র পরিবারের লোকজন।

এদিকে টানা বর্ষন ও পাহাড়ি ঢলে নিম্ন এলাকা তলি গেছে। ডুবে আছে উপজেলার একাধিক ইউনিয়নের গ্রামীণ যাতায়াতের পথ। তলিয়ে গেছে বিভিন্ন গ্রামীণ সড়ক। এতে করে চরম দূর্ভোগে পড়েছে এখানকার হাজারো জনসাধারণ। বিদ্যুৎ বিহীন হয়ে পড়েছে কয়েকটি ইউনিয়নের সর্বসাধারণ।

এ দিকে উপজেলার মেখল, গড়দুয়ারা, মাদার্শা, মির্জাপুর,নাঙ্গলমোড়া,গুমান মর্দন,ছিপাতলী,শিকারপুর,বুড়িশ্চর ইউনিয়নে পানিবন্ধী হয়ে পড়েছে মানুষ। হালদার পানি বাড়তে থাকায় মানুষ এ দিক ওদিক ছুটপেুট পানিতে ডুবে আছে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টান ও মসজিদ ডুবে গেছে। হাটহাজারী পৌর এলাকার মোহাম্মদপুর,ফটিকা,মীরেরখীল পানিবন্দী হয়ে পড়েছে মানুষ।

সরেজমিন,উপজেলার মেখল ইউনিয়নের আচার্য্যপাড়া,কাসিমার বটতল,মুফতি ফয়েজ উল্লাহ্ সড়ক রাস্তার উপর ৪/৫ থাকায় কয়েকটি ইউনিয়নের সাথে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।