খাগড়াছড়িতে এইচএসসিতে পাশের হার শতকরা ৪৯.৯৩

॥ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥

এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে খাগড়াছড়িতে। এ জেলায় এবার ১৩টি কলেজে পাশের হার ৪৯.৯৩ শতাংশ। ফলাফল পেয়ে আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠেছে কলেজগুলোর কৃতকার্য শিক্ষার্থীরা। খাগড়াছড়ি পার্বত্য এ জেলায় এবার ১৩ টি কলেজের এইচএসসিতে সর্বমোট ৬ হাজার ৭ শত ৫৪ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করে। তার মধ্যে ছেলে শিক্ষার্থী ৩ হাজার ৫ শত ২৬ জনের মধ্যে পাশ করেছে ১ হাজার ৭ শত ২ জন। মেয়ে শিক্ষার্থী ৩ হাজার ২ শত ২৮ জনের মধ্যে ১ হাজার ৬ শত ৭০ জন। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৫ জন।

তবে এবার খাগড়াছড়িতে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ফল বিপর্যয় হয়েছে। কমেছে জিপিএ ৫ এর সংখ্যাও। খাগড়াছড়িতে এইচএসসির ফলাফলে বরাবরের মতো এবছরও নিজেদের সাফল্য ধরে রেখেছে খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ। চলতি বছরের ফলাফলে বিজ্ঞান বিভাগে ৮০ জনে ৭৩জন, মানবিকে ৪৩ জনে ৩৮ জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ২৬জনে ২৫ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। এ কলেজ থেকে মানবিক বিভাগে ২জন ও বিজ্ঞান বিভাগে ১১ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে।

খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ২৮৫ জনে ১৩৭ জন, মানবিকে ৪৬০ জনে ১৫৪জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ৪১৯ জনে ১৮২জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। জিপিএ পায়নি কেউ। অন্যদিকে খাগড়াছড়ি সরকারী মহিলা কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৯৫ জনে ৩১জন, মানবিকে ২৫৭ জনে ৯৭জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১১৫ জনে ৪৫জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

রামগড় সরকারী কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৫৩ জনে ২৫ জন, মানবিকে ২৬০ জনে ৬৭জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৫১জনে ১১০জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। এ কলেজে মানবিক বিভাগে ১জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে। মহালছড়ি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬২জনে ৪২জন, মানবিকে ২১০ জনে ১২২জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৩৮ জনে ৫৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। মানিকছড়ি গিরিমৈত্রী কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ১২২জনে ৭৭জন, মানবিকে ৫১৮ জনে ১৬৩জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ২৪৪ জনে ১০৫ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

মাটিরাঙ্গা ডিগ্রী কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬৯ জনে ৬১জন, মানবিকে ৪২৫ জনে ২০১জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৪৪ জনে ৯৪জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। পানছড়ি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬০ জনে ৩৫জন, মানবিকে ৫৯৪ জনে ২৫৬জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১৭৬ জনে ১১৮জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। দীঘিনালা কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ১৬৪ জনে ১১৯জন, মানবিকে ৮০১ জনে ৩২৯জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ২৩২জনে ১৪৮জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। লক্ষীছড়ি কলেজে মানবিকে ৪২ জনে ১৫ জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ২ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে।

গুইমারা কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ৬১ জনে ৬০জন, মানবিকে ৬৪ জনে ৪৯জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ৫৩জনে ৪১জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। বৌদ্ধ শিশু ঘর হাইস্কুল এন্ড কলেজে মানবিকে ১৭ জনে ৮ জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ৩জনে ২জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। তবলছড়ি গ্রীণহিল কলেজে মানবিকে ১৪২ জনে ৯৮ জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ৮০ জনে ৭৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। বাবুছড়া কলেজে মানবিকে ৯৮ জনে ৪৬ জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ১২জনে ৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। চেঙ্গী সরিবালা স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ে মানবিকে ২২ জনে ১৮ জন ও ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ৬জনে ৬ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। অন্যদিকে জেলার কুজেন্দ্র মল্লিকা মডার্ন কলেজে ব্যাবসায় শিক্ষা বিভাগে ২জনের মধ্যে ১জন শিক্ষার্থী পাশ করলেও মানবিক বিভাগে ১৯ জন পরীক্ষার্থীও মধ্যে কেউই পাশ করেনি। সব মিলিয়ে এ জেলায় এবার পাশের হার ৪৯.৯৩ পার্সেন্ট।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো: শহিদুল ইসলাম বলেন, পড়া-লেখায় শিক্ষার্থীরা মনোযোগি হলে ফলাফল করা সম্ভব হতো। তবে সমতলের তুলনায় পার্বত্য জেলার ফলাফল অনেকটা ভালো বলা যায়। পার্বত্য জেলা হলেও এ জেলার শিক্ষার্থীরা তেমন পিছিয়ে নেই। তবে প্রত্যাশা অনুসারে পাসের হার কম হওয়ায় শিক্ষার্থীদের আগামীতে এ জেলার সম্মান উজ্জ্বল করতে চেষ্টা অব্যাহত রাখার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।