জুরাছড়িতে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

॥ জুরাছড়ি প্রতিনিধি ॥

সারাদেশের ন্যায় জুরাছড়ি উপজেলা মৎস্য দপ্তর এর আয়োজনে মাছ চাষে গড়বো দেশ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ এই প্রতিপাদ্যকে নিয়ে আজ বুধবার উপজেলা পরিষদ মসজিদের পুকুরে পোনা অবমুক্তকরণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান সুরেশ কুমার চাকমা,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান,ভাইস চেয়ারম্যান রিটন চাকমা সহ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান গণ ও মৎস্য চাষী এবং মৎস্যজীবি বৃন্দ।

আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান এর সভাপতিত্বে মৎস্য কর্মকর্তা মৃনাল কান্তি চাকমা’র সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান সুরেশ কুমার চাকমা,ভাইস চেয়ারম্যান রিটন চাকমা,বনযোগীছড়া ইউপি চেয়ারম্যান সন্তোষ বিকাশ চাকমা। সভায় সুরেশ কুমার চাকমা জেলেদের উদ্দেশ্য করে বলেন,যারা জাক সৃষ্টি করে মাছ আহরণ করেন তাদের প্রতি কঠোর হুঁসিয়ারী করে জানান,কেউ যদি জাক দিয়ে থাকেন তাহলে আগামী দশ দিনের মধ্যে এগুলো ছড়ানোর জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

এছাড়াও তিনি জানান,প্রতি বছর মাছের চাহিদা পুরনের লক্ষে সরকার কোটি টাকা খরচ করে কাপ্তাই হ্রদে পোনা অবমুক্তকরণ করা হয়। এমন কিছু সংখ্যক অসাধু জেলে রয়েছেন যা আইন অমান্য করে প্রায়ই সময় মাছ স্বীকার করে বাজারে অবাদে বিক্রি করে থাকেন,আজ থেকে এমন কোন জেলেকে প্রমান পাওয়া গেলে আইন মোতাবেক বিবিধ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে সাব জানিয়ে দেন।মাহফুজুর রহমান বলেন,মৎস্য চাষী এবং মৎস্য জীবিদের সুবিধাত্বে মাছ উৎপাদন বাড়ানো ক্ষেত্রে ব্যাংক থেকে লোন ব্যবস্থা সহ যা করা প্রয়োজন পরিষদ থেকে সহযোগিতার আশ^াস প্রদান করেন। এছাড়া ও বক্তব্য রাখেন মৎস্য চাষী অনিল কুমার চাকমা,আনন্দ সাগর চাকমা প্রমুখ।