ভেঙে পড়ার আশংকায় নাজিরহাট পুরাতন হালদা ব্রিজ!

॥ হাটহাজারী প্রতিনিধি ॥

চট্টগ্রামের হাটহাজারী ও ফটিকছড়ির সীমান্ত নাজিরহাট পুরাতন ব্রিজটি সংস্কারের অভাবে জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। দুই উপজেলার নাজিরহাট কলেজ রোড এলাকা ও ফটিকছড়ি নাজিরহাট পৌর-বাজারের সাথে এই সেতুটি ঝুকিপুর্ণ হলেও জনসাধারণ সেতু দিয়ে পারাপার হতে বাধ্য হচ্ছে। সেতুটি ঝুকিপুর্ণ হওয়ায় জনসাধারণের পারাপারের সময় দুলতে দেখা যায়।

সেতুটি ঝুকিপুর্ণ দেখা দেয়ায় নাজিরহাট পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ব্রিজের উভয় পাশে ছোট পিলার ও সাইন বোর্ড দিয়ে চলাচল বন্ধ করে দেয়। ফলে হালদা নদীর এপার-ওপারের লোকজন, বাজারের ক্রেতা সাধারণ আসা-যাওয়া বন্ধ হয়ে যায়।

জানা গেছে, ব্রিটিশ শাসন আমলে নাজিরহাট বাজারে মধ্যবর্তীস্থলে হালদা নদীর উপর নাজিরহাট-হাটহাজারী সংযোগস্থলে সেতুটি নির্মিত হয়। সেতুটির দৈর্ঘ্য প্রায় ৩০০ ফুট আর প্রস্তে রয়েছে ১২ ফুট। স্বাধীনতা যুদ্ধে সেতুটি পূর্বের শেষ দিক ডিনামাইট দ্বারা উড়িয়ে দেয়া হয়। দেশ স্বাধীনের পর সংস্কার করে সেতু দিয়ে গাড়ি চলাচল শুরু হয়। পরবর্তী সময়ে এক যুগ আগে একবার সামান্য সংস্কার হলেও সেতুটির আর কোনো সংস্কার হয়নি। মেয়াদ উত্তীর্ণ পিলারের উপর ভর করে সেতুটি এখানো দাঁড়িয়ে আছে। বালুখেকোদের কবলে পড়ে ব্রিজের পিলারের নিচ থেকে মাটি ও সরে গেছে। দীর্ঘদিন আগে সওজের সংশ্লিষ্টরা ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করলেও সংস্কার কিংবা নতুন ব্রিজ নির্মাণের উদ্যেগ নেয়নি। ব্রিজটি ঝুকিপুর্ণ দেখা দেয়ায় ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নাজিরহাট পৌর কর্তৃপক্ষ ব্রিজটি দিয়ে জনসাধারণ পারাপারে নিষেধধাজ্ঞা জারী করে একটি সাইনবোর্ড টাঙিয়ে দেন।