বান্দরবানে ছেলেধরা সন্দেহে রোহিঙ্গা নারী আটক!

॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

বান্দরবানে ছেলে ধরা সন্দেহে এক নারীকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। শুক্রবার সকালে সদর উপজেলার লেমুঝিরি আগা পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত মহিলার নাম রোকেয়া বেগম (১৮) সে কক্সবাজার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের শরনার্থী বলে জানা যায়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সকালে লেমুঝিরি আগা পাড়া এলাকায় শুভ নামে এক ছেলে গরু চড়াতে মাঠে গেলে ঐ মহিলা তাকে কাছে ডাকে। অপরিচিত মহিলা ডাকায় ছেলেটি গিয়ে তার পরিবারের লোকদের বিষয়টি বললে স্থানীয় লোকজন গিয়ে ঐ মহিলাকে ধাওয়া করলে সে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে পরে এলাকাবাসী তাকে ধরে মারধর করে পুলিশে খবর দেয় পরে পুলিশ মহিলাটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। স্থানীয় বাসিন্দা উজ্জল তঞ্চঙ্গ্যা বলেন মহিলাটি কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্প থেকে এসেছে বলে জানায় তার সাথে আরো ৪ জন সঙ্গী রয়েছে বলেও এলাকাবাসীর কাছে স্বীকার করে। তবে মহিলার চিৎকার শুনে তার সাথীরা পালিয়ে যায়। তবে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মেয়েটি জানায় মাথার চিকিৎসা করানোর জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেলে যাবার কথা বলে সে কুতুপালং ক্যাম্প থেকে বের হয়।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম জানান, বালাঘাটার লেমুঝিড়ি আগা পাড়া এলাকায় ছেলে ধরা সন্দেহে এক মহিলাকে আটক করেছে এলাকাবাসী। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে সুস্থ্য হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।