কাপ্তাইয়ে বৃক্ষমেলায় গাছ প্রেমিকদের উপচেপড়া ভীড়

॥ নূর হোসেন মামুন – কাপ্তাই ॥

সবুজ কার না ভালো লাগে! সবুজের সার্নিদ্ধে প্রেম-ভালোবাসা হয়ে উঠে মধুময়। প্রেমিকার ভালোবাসার মোহ মানুষকে যেমন ভাবে আকৃষ্ট করে, ঠিক তেমনি গাছের প্রতি দুর্বলতাও মানুষের আদি কাল থেকেই। মঙ্গলবার কাপ্তাইয়ের বড়ইছড়িতে ৩’দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হওয়া বৃক্ষমেলা ঘুরে গাছ প্রেমিকদের সাথে কথা বলে জানা গিয়েছে বৃক্ষের প্রতি জড়িয়ে থাকা মানুষের ভালোবাসার নানান গল্প। প্রথম দিনেই মেলায় আগমন হয়েছে আশাতিত মানুষের এমনটাই বলছে আয়োজকরা। তবে বিক্রয়ে অসন্তুষ্টির কথা বলছেন দোকানীরা। মেলা ঘুরে পছন্দের গাছ কিনতে পেরে আত্মতৃপ্তির কথাও জানান অনেক ক্রেতারা।

কাপ্তাই উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বর্ণাঢ্য আয়োজনে মঙ্গলবার উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে উদ্বোধন হয়েছে ৩’দিনব্যাপী ফলদ বৃক্ষ মেলার। সরকারি, বেসরকারি সহ স্থানীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ১১’টি স্টলে নানান প্রজাতির গাছের চারায় সয়লাভ এবারের বৃক্ষ মেলা।

রাইখালীর কারিগরপাড়া এলাকা থেকে মেলায় আসা কলেজ পড়–য়া মিনুচিং মারমা জানিয়েছেন, সে অনেক দুর থেকে গাছ কিনার আশায়ই এখানে এসেছে। অন্যদিকে কর্ণফুলী কলেজের প্রথম বর্ষের জিয়াউল হক বলেছেন, হুমায়ুন আহমেদের উপন্যাস ও বাড়ির বাড়ান্দার ফুটন্ত গাছ আমাকে অদ্ভুত ভাবে টানে। তাই মেলার কথা শুনা মাত্রই ছুঁটে এলাম।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেলের সভাপতিত্বে সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন করেন, কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মফিজুল হক। সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মংসুইপ্রু মারমার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে এসময় উপজেলাটির বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, শিক্ষক, শিক্ষার্থী সহ নানান শ্রেণী পেশার মানুষের আগমণ ঘটে। এর আগে উপজেলা চত্বর থেকে বের হয় বর্ণাঢ্য একটি র‌্যালী।

কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মফিজুল হক জানান, গাছের প্রতি আমাদের ভালোবাসা আসলে বর্তমানে কমে যাচ্ছে। যার ফলে সমুদ্রপৃষ্ঠের গভিরতা হ্রাস পাওয়া সহ বৃদ্ধি পাচ্ছে তীব্র তাপদাহ। বন উজাড়ের ফলে অপ্রত্যাশিত ভাবেই বাড়ছে পাহাড় ধসের পরিমান।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল জানান, আমাদের দেশ শষ্য-শ্যামলা সুফলা দেশ। কিন্তু কালের বিবর্তনে আমরা আমাদের সেই ঐতিহ্যকেজ হারাতে বসেছি। তাই বেশি করে গাছ লাগাতে হবে।

কাপ্তাই উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. নাছির উদ্দিন বলেন, গাচ আমাদের উপকারী বন্ধু। আজ গাছ লাগালে একটা সময় আমরা ঠিকই তার সুফল ভোগ করতে সক্ষম হবো।