ছেলেধরা ও রক্ত নেওয়ার গুজবে স্থাস্থ্য কর্মীদের রক্ত পরীক্ষা করতেও অসুবিধা হচ্ছেঃ সিভিল সার্জন

॥ স্মৃতিবিন্দু চাকমা – জুরাছড়ি ॥

জুরাছড়ি উপজেলার ম্যালেরিয়া প্রকোপ প্রতিরোধ বিষয় নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজুর রহমান ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানদের সাথে আলোচনা করেছেন রাঙ্গামাটি জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ শহীদ তালুকদার।

শহীদ তালুকদার বলেন, বিগত বছরের চাইতে এ বছর জুরাছড়ি উপজেলার প্রত্যন্ত দুমদুম্যা ইউনিয়নে বেশী ম্যালেরিয়ার প্রকোপ বেশি দেখা যাচ্ছে। তাই উক্ত ইউনিয়নে সরকারি মেডিক্যাল টিমের পাশা-পাশি ব্রাক ম্যালেরিয়া নির্মূলকরণের লক্ষে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন বলে স্থানীয় চেয়ারম্যানদের অবহিত করেন। তিনি আরো জানান,ব র্তমানে সারাদেশে ছেলেধরা ও রক্ত নেওয়া যে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে, স্থাস্থ্য কর্মীদের রক্ত পরীক্ষা করতেও বর্তমানে অসুবিধা হচ্ছে, এজন্য এলাকার জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার অনুরোধ করেন।

জুরাছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজুর রহমান বলেন, ম্যালেরিয়া নির্মূলকরণের লক্ষে উপজেলা প্রশাসন থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানের জন্য সির্ভিল সার্জন কে আশ্বাস দেন।

দুমদুম্যা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শান্তিরাজ চাকমা জানান, প্রত্যন্ত দূর্গম হওয়াতে অসচেনতার অভাবে আমার ইউনিয়নে বেশীভাগ জনগণ ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে থাকেন। এলাকার জনগণকে সচেতন করার জন্য আগামীতে মেডিক্যাল টিমের সাথে অবশ্যই ইউপি সদস্য ও কার্বারীদের সাথে রেখে প্রতিটি গ্রামে গিয়ে এ বিষয়ে আলোচনা করা হবে বলে জানান।

সৌজন্য আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, ডাঃ বিপাশ খীসা, ১নং ইউপি চেয়ারম্যান ক্যানন চাকমা, ৩নং মৈদং ইউপি চেয়ারম্যান সাধনানন্দ চাকমা, সাংবাদিক স্মৃতিবিন্দু চাকমাসহ সির্ভিল সার্জনের সফর সঙ্গীরা।