ব্রেকিং নিউজ

রাঙামাটিতে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ পালিত

॥ শেখ ইমতিয়াজ কামাল ইমন ॥
সারা দেশের ন্যায় পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে “শিশুকে মাতৃদুগ্ধ পান করাতে মাতা পিতাকে উৎসাহিত করুন” এই প্রতিপাদ্যে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহের র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকালে  রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ একাডেমী মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত আলোচনা সভায় রাঙামাটি জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ শহীদ তালুকদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক ডাঃ প্রীতি প্রমুল বড়ুয়া। মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহের আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি ডেপুটি সিভিল সার্জন নীহার রঞ্জন নন্দী, পরিপার পরিকল্পনা বিভাগের উপ পরিচালক বেগম সাহান ওয়াজ, রাঙামাটি মেডিকেল হাসপাতালের শিশু  বিষয়ক অধ্যাপক ডাঃ আবুল হাই, বাংলাদেশ ব্রেস্টফিডিং ফাউন্ডেশনের প্রোগ্রাম অফিসার নিয়ামত আলী নিয়াজসহ জেলা হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজের  বিভিন্ন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।
উক্ত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, শিশুর জন্য মায়ের দুধের কোনো বিকল্প নেই। জন্মের পর থেকে ৬ মাস বয়স পর্যন্ত মায়ের দুধই শিশুর একমাত্র খাবার। কারণ জন্মের  পর  পরই  শিশুকে শাল দুধ খাওয়াতে হবে এতে করে  শাল দুধ  শিশুর  প্রথম টিকা হিসেবে কাজ করে।
এছাড়া শিশুকে  মায়ের দুধ   খাওয়ালে শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, শিশুকে মায়ের দুধ খাওয়ালে  মায়ের  পরবর্তী রক্তক্ষরণ এবং পরবর্তীতে ওজনাধিক্য, স্তন ও জরায়ু ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি কমে যায়। বক্তারা  আরো বলেন, গুঁড়া দুধ  ও প্যাকেটজাত খাওয়ানো পরিহার করে আহব্বান করেন।
এর  আগে  শিশুকে মাতৃদুগ্ধ  পান করাতে  মাতা পিতাকে উৎসাহিত করুন এই প্রতিপাদ্যে রাঙামাটি সরকারি হাসপাতালের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‍্যালী বের করা হয়। র‍্যালীটি জেলা শহরের  প্রধান সড়ক ঘুরে মেডিকেল কলেজ মিলনায়তনে এসে শেষ হয়।