আমাদের পরিবেশ, আমাদের দায় দায়িত্ব: ইউএনও রুহুল আমিন

॥ হাটহাজারী প্রতিনিধি ॥

হাটহাজারী গালর্স স্কুল এন্ড কলেজ পরিদর্শন করেছেন ইউএনও মোহাম্মদ রুহুল আমিন। শনিবার(৩ আগষ্ট) সকালে স্কুল পরিদর্শন কালে তিনি বলেন, সুন্দর পরিবেশ ছাড়া আমরা এক পা’ও এগোতে পারি না। সুস্থ ও স্বাভাবিকভাবে বাঁচার জন্য সুন্দর, নির্মল ও পরিষ্কার পরিবেশের প্রয়োজনে আছে প্রত্যেকের। পরিবেশ নোংরা বা অপরিছন্ন থাকলে ছাত্রছাত্রীদের মানসিক অবস্থা ভালো থাকে না। ভাল লেখাপড়া করে সুন্দর ভবিষ্যৎ গঠনের জন্য খেলাধুলার আবশ্যকতা খুবই জরুরী। বিদ্যালয়ে পাঠদানের ফাকে শিক্ষার্থীরা যাতে তাদের সুন্দর মন গঠন করতে পারে সেজন্য প্রতিটি স্কুলেই খেলার মাঠ সচল রাখা জরুরী। আগে স্কুলের মাঠের অবস্থা ছিল করুন, ছাত্রীরা সুন্দর পরিবেশে খেলাধুলা থেকে বঞ্চিত ছিল। এখন এই স্কুলের সার্বিক পরিবেশ আগের চেয়ে অনেক সুন্দর। বর্ষায় জলাবদ্ধ স্কুলের খেলার মাঠ,বঞ্চিত ছিল ছাত্রীদের খেলাধুলা। বর্ষা মৌসুম আসলেই জলাবদ্ধতার কবলে পড়ে খেলাধুলা মাঠটি। তাই মাঠটি ভরাট করতে হয়েছে। সুন্দর পরিবেশে আশপাশে ফুল গাছ লাগানো হচ্ছে, দেখবেন আগামী কয়েক মাসের মধ্যে স্কুলের পরিবেশ অনেকটা সুন্দর হবে। সবাইকে মন মানসিকতা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে, না হয় স্কুলের শিক্ষার পরিবেশ থাকবে না।

অধ্যক্ষ আলী আহমদ বলেন, এই প্রথম বারের মত উপজেলা প্রশাসন থেকে মাঠ ভরাটের আর্থিক ভাবে সহযোগিতা পেয়েছি। এর আগে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তেমন একটা বরাদ্ধ পাওয়া যায়নি। মাঠ ভরাটের বরাদ্ধের জন্য ইউএনও মহোদয়কে স্কুলের পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নাজিম উদ্দিন, সদস্য জসিম উদ্দিন সিকদার, স্কুলের শিক্ষক, শিক্ষিকাসহ ছাত্রীরা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পৌর প্রশাসক মোহাম্মদ রুহুল আমিন যোগদানের পর বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চালিয়ে যান। তিনি মাঠ ভরাটের জন্য উপজেলা প্রশাসনকে আর্থিক ভাবে সহযোগিতা করেন। স্কুলের কিছু জায়গা দখলমুক্ত করেন তিনি। দীর্ঘ দিন ওই জায়গাটি প্রভাবশালীদের দখলে ছিল। স্কুলের সুন্দর পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদেরকে আহবান জানান প্রয়োজনে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আরো সহযোগিতার আশ্বাস দেন।