সরগরম রাঙামাটির কামার পট্টিঃ দা-বটীতে দেওয়া হচ্ছে শেষ পর্যায়ের শাণ

॥ মাসুদ পারভেজ নির্জন ॥

আসন্ন কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে রাংগামাটির লঞ্চ ঘাটের কামাররা ব্যস্ত সময় পার করছেন। কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে দা, বটী, ছুরি ও চাপাতি তৈরীর কাজ। সারা বছর তেমন একটা কাজ না থাকলেও কোরবানীর ঈদের এ সময়টা বরাবরই ব্যস্ত থাকতে হয় তাদের।

পশু জবাইয়ের দা-বটী মেরামত করতে ও কিনতে লোকজন ভীড় করছেন কামার পট্টিতে। রিজার্ভ বাজারের কামার পট্টিতে গিয়ে দেখা গেছে টুলে বসে লোহা পেটাচ্ছেন কারিগররা। কামারেরা তাদের দোকানের খোঁপে সাজিয়ে রেখেছে তাদের তৈরী দা, বটি ছুরি ও চাপাতি। দোকানের খোঁপে সাজিয়ে রাখা এসব হাতিয়ার তাদের পছন্দমত কিনছেন ক্রেতারা ।

কামার পট্টিতে দা, ছুরি কিনতে আসা ক্রেতা জানান, অন্য সময়ের চেয়ে কোরবানী ঈদের সময় দা-বটীর দাম একটু বেশী থাকে। এদিকে নতুন দা-বটী কেনা ও মেরামত বাবদ একটু বেশি মূল্য ধরার বিষয়ে কামার দোকানীদের কাছে জানতে চাইলে তারা জানান, বর্তমানে কয়লা ও লোহার দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় আমাদেরও মূল্য একটু বৃদ্ধি করতে হয়েছে।

রিজার্ভ বাজারের বয়জোষ্ঠ্য কামার বাদল জানান, সারা বছর কাজ খুব কম থাকে কোরবানি এলে কাজ বেড়ে যায়। প্রতিটি দা বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ টাকা, ছুরি ১২০-২৫০ টাকা, বটি ৮৫০টাকা, চাপাতি ৮০০ টাকা।