জাতীয় শোক দিবসে স্বাধীনতার স্থপতিকে স্মরণে রাঙামাটিতে নানান কর্মসূচী

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাঙামাটিতে সরকারি-বেসরকারিভাবে নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সরকারিভাবে ব্যাপক কর্মসূচি পালন করেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন। এ ছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ, উন্নয়ন বোর্ড, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান পৃথক কর্মসূচি পালন করেছে।

সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সরকারি বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনিমিত রাখা হয়। সকালে শহরের বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্যে পু®পস্তবক অর্পণ, শোক র‌্যালি, বঙ্গবন্ধুর জীবনীর ওপর আলোচনা সভা, দুপুরে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রার্থনা, কারাগার, হাসপাতাল, বৃদ্ধনিবাস, এতিমখানা ও শিশু সদনে উন্নত মানের খাবার পরিবেশনসহ দিনব্যাপী কর্মসূচি পালিত হয়েছে। জেলা প্রশাসন এসব কর্মসূচি পালত করে।

সকালে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য চত্ত্বর হতে শোক র‌্যালি বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় পুলিশ সুপার মো. আলমগীর কবির, রাঙামাটি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মাইন উদ্দিন, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. টিপু সুলতান, রাঙামাটি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শহীদুজ্জামান মহসিন রোমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। আলোচনা সভা শেষে জাতীয় শোক দিবসকে কেন্দ্র করে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ।

এদিকে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে অস্থায়ী প্রধান কার্যালয় ও ক্যাম্পাসে জাতীয় পতাকা অর্ধনিমিতকরণ, সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, বিশ^বিদ্যালয়ের অস্থায়ী প্রধান কার্যালয় হতে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল পর্যন্ত শোক র‌্যালির আয়োজনসহ বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করেছে, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

এদিকে, দিবসটি উপলক্ষে সকালে সদর উপজেলা পরিষদ হতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল পর্যন্ত শোক র‌্যালি শেষে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে পুস্পস্তবক অর্পণ করে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ। পরে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সভাকক্ষে গিয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় পরিষদ সদস্য স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা, রেমলিয়ানা পাংখোয়া, নির্বাহী প্রকৌশলী ক্য হলা খই, সিভিল সার্জন ডা. শহীদ তালুকদার, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. বরুণ কুমার দত্ত, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক পবন কুমার চাকমা, মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইয়াছিন, পরিবার পরিকল্পনা বিভিাগের উপ-পরিচালক বেগম সাহান ওয়াজ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন পরিষদের জনসংযোগ কর্মকর্তা অরুনেন্দু ত্রিপুরা।