ঘুম ভাঙ্গেনি অধ্যক্ষ-শিক্ষকদের তাই উপস্থিত হননি জাতির পিতার শাহাদত বার্ষিকীতে!

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। এদিন স্বাধীনতার মহান স্থপতি, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী। জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাঙালি জাতি গভীর শ্রদ্ধার সাথে পালন করেছে দিনটি কিন্তু পাবনার অন্যতম সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শহীদ বুলবুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষসহ ২৫জন শিক্ষক এই কর্মসূচীতে অনুপস্থিত ছিলেন।

মাত্র ১৩জন শিক্ষক জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন।

কয়েকজন শিক্ষার্থী সাংবাদিকদের জানান, প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষসহ ২৫জন শিক্ষকের অনুপস্থিতি সর্ম্পকে জানতে অধ্যক্ষের মোবাইলে ফোন করলে তার মোবাইল নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

২৫জন শিক্ষকসহ অধ্যক্ষের এমন দায়িত্বহীনতার বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে সমালোচনার ঝড় বইছে। অনেকেই জানিয়েছেন তীব্র প্রতিবাদ।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান সুইট তার ফেসবুক পেজে এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে লিখেছেন, ‘জাতির পিতার প্রতি এমন অবজ্ঞা সহ্য করা যায় না। এর বিচার চাই।’

অনেক শিক্ষার্থী তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এভাবে- যেখানে সারা দেশে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযথ ভাবে পালন করছে, অথচ শহীদ বুলবুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষসহ ২৫ জন শিক্ষক এর ঘুম-ই ভাঙ্গে নাই, এ লজ্জা আমরা কোথায় রাখি?

অনেক শিক্ষার্থী এই দুঃখজনক ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীসহ শিক্ষামন্ত্রী ও শিক্ষা সচিবের দৃষ্টি আকর্ষণ করে সুষ্ঠু বিচার চেয়েছেন। ক্যাম্পাস পদক্ষিণ করে জানা যায়, আগামীকাল শনিবার থেকে অধ্যক্ষ’র আপসারণ চেয়ে বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করেছে শিক্ষার্থীরা।