পার্বত্য চট্টগ্রামকে ভারতের অংশ দাবি করে সমাবেশ করা গভীর ষড়যন্ত্রের অংশঃ এমপি দীপংকর

॥ সৌরভ দে ॥

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে ২৯৯নং আসনের এমপি দীপংকর তালুকদার বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামকে বাংলাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করতে আন্তর্জাতিকভাবে ষড়যন্ত্র চলছে। ভারতের আগরতলায় পার্বত্য চট্টগ্রামকে ভারতের অংশ দাবী করে সমাবেশ তারই বহিঃপ্রকাশ। এই ধরনের ষড়যন্ত্র আওয়ামীলীগ যেকোন মূল্যে মোকাবেলা করবে বলেও তিনি ঘোষণা দেন।

রাজস্থলীতে সেনাবাহিনীর উপর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি আরো বলেন, একটি পক্ষ চেয়েছিল এই ধরনের ঘৃণ্য কর্মকান্ড করলে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নির্বিচারে ধরপাকড় শুরু করবে আর অমনি “সেনাবাহিনী অত্যাচার করছে” বলে ধুয়ো তুলে পাহাড়ে আবারো বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করা যাবে কিন্তু এমনটি হয়নি। সেনাবাহিনী অত্যন্ত ধৈর্য্যের সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলা করে শুধু মাত্র অপরাধীদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নিচ্ছে জানিয়ে সাংসদ দীপংকর তালুকদার সেনাবাহিনীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

২১ আগস্টের সেই ভয়াবহ দিনের স্মৃতি মন্থন করে তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় তখন আমাদের বেশিরভাগ নেতাকর্মীদেরই লুকিয়ে থাকতে হত কারণ বের হলেই আমাদের উপর হামলা হত। ওইরকম পরিস্থিতিতেও রাঙ্গামাটিতে হাজার হাজার নেতাকর্মী ২১ আগস্টের ঘৃণ্য হামলার প্রতিবাদে তৎক্ষণাৎ বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহন করেছিল। আগামীদিনে আওয়ামীলীগের এই সাহসী সৈনিকেরাই সকল প্রকার ষড়যন্ত্র প্রতিহত করবে।

এর আগে রাঙামাটি পৌরসভা প্রাঙ্গন থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গনে এসে মিছিলটি শেষ হয়।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, সহ-সভাপতি নিখিল কুমার চাকমা, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বরসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।