রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের সার্ভেয়ার গফুরের বিরুদ্ধে আয় বর্হিভুত সম্পদ উপার্জনের দায়ে মামলা

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সার্ভেয়ার আবুদল গফুরের বিরুদ্ধে মামলা করেছে সমন্বিত কার্যালয়, চট্টগ্রাম দুনীর্তি দমন কমিশন ২ এর সহকারী পরিচালক, তথ্য গোপন ও অবৈধ সম্পত্তি অর্জনের অভিযোগে মামলাটি করেন।

জানা গেছে, দুদক নিয়মিত অনুসন্ধান শেষে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনে কর্মরত সার্ভেয়ার আবদুল গফুরকে তার যাবতীয় সম্পদ বিবরনী হিসাব দিতে দুনীর্তি দমন কমিশন, সমন্বিত কার্যালয় চট্টগ্রাম ১ থেকে নোটিশ দেয়া হয়। নোটিশ দেয়ার পর সার্ভেয়ার আবদুল গফুর সম্পত্তির হিসাব জমা দেয়।

দুদক অনুসন্ধান করে যাচাই বাছাই করে জানতে পারে তথ্য বিবরনীতে সার্ভেয়ার আবদুল গফুর ২২ লক্ষ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করে এবং আরো ৪১ লক্ষ টাকার জ্ঞাত আয় বর্হিভুত সম্পত্তি অর্জন করে।

গত ২০ আগষ্ট সমন্বিত চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিশন ১ অঞ্চলের সহকারি পরিচালক হুমায়ুন কবির মিথ্যা তথ্য ও গোপন অবৈধ সম্পাদ অর্জনের অভিযোগে সার্ভেয়ার আবদুল গফুরের বিরুদ্ধে দুনীর্তি দমন কমিশন আইনের ২০০৪ এর ২৬ এর ২ ধারায়, এবং ৪১ লক্ষ টাকা জ্ঞাত আয় বর্হিভুত সম্পদ উপার্জনের এর দায়ে ২০০৪ এর ২৭ ধারার ১ এবং ১৯৪৭ এর ৫ এর ২ ধারায় সমন্বিত চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিশন ২ অঞ্চলে মামলা (মামলা নম্বর ২২/ তাং ২০-০৮-২০১৯ইং) দায়ের করেন।

চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিশন ১ অঞ্চলের সহকারি পরিচালক হুমায়ুন কবির মামলার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আসামীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সার্ভেয়ার গফুর বর্তমানে খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি ভুমি অফিসে কর্মরত।