ব্রেকিং নিউজ

মানিকছড়ির ত্রাস শাহিনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ স্থায়ী বাসিন্দারাঃ এসআই’র সাথে সখ্যতা!

॥ আল মামুন – খাগড়াছড়ি ॥

খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতে প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ভুমি দখলবাজী, চাঁদাবাজীসহ এলাকার ত্রাস আবুল হোসেন (শাহিন) অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। রাঙ্গামাটির ডিপির ক্ষতিগ্রস্থ প্রজা ও স্থানীয় বাসিন্দাদের জায়গা দখলের চেষ্টাসহ একটি চক্রের মদদে সন্ত্রাসী কায়দায় একের পর এক জায়গা দখলের চেষ্টা করে আইন-শৃঙ্খলা বিনষ্টের চেষ্টা করলেও তার বিরুদ্ধে নেওয়া হচ্ছে না কোন আইনি ব্যবস্থা।

ফলে স্থানীয়দের মধ্যে প্রশাসনের প্রতি ক্ষোভসহ প্রশ্ন উঠেছে এ শাহিনের খুটির জোর কোথায়? বর্তমানে তার সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে সহযোগিতা করার অভিযোগ উঠেছে মানিকছড়ি থানা পুলিশের এসআই কাজী মোহাঃ শাহনেওয়াজ এর বিরুদ্ধে। স্থানীয়দের ধারনা ঘুষ গ্রহণ করে এ কর্মকর্তা তাকে সহায়তা করে আইনের শাসনের বিপরীতমূখী কাজ করছে। ফলে উৎসাহিত হচ্ছে অপরাধ কর্মকা-।

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই বাঁধের ক্ষতিগ্রস্থ প্রজা ছিদ্দিক আহম্মদের তিন ছেলের পৈত্রিক সম্পত্তি অবৈধভাবে দখলের চেষ্টা করছে অভিযুক্তরা। এ জায়গা নিয়ে হাইকোর্টের ২৪৩১/২০১৩ সিভিল মামলা চলমান রয়েছে। সে সুযোগে বহিরাগত আবুল হোসেন (শাহীন) সন্ত্রাসী কায়দায় চাঁদাদাবী করে টাকা না পেয়ে উক্ত জায়গা দখলের চেষ্টা করে যাচ্ছে।

এ জায়গায় স্থিতি বজায় রাখতে হাইকোর্টে মামলার আদেশ থাকলেও ভাড়াটে লোকজন নিয়ে জবর দখলের চেষ্টায় করছে আবুল হোসেন (শাহীন)। তাকে বর্তমানে সহায়তা করছেন মানিকছড়ি থানার এসআই কাজী মোহা, শাহনেওয়াজ। এসআই কাজী মোহাঃ শাহনেওয়াজ অন্যের রেকর্ডিয় জায়গা দখলের করে দিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে উক্ত ভুমি দখল করে দেওয়ার জন্য জায়গার মালিককে হুমকি দেয় এবং আগামী ২৮ আগস্টের মধ্যে জায়গাটি ছেড়ে না দিলে বা সমাধান না হলে উক্ত জায়গায় শাহিনকে ঘর নির্মান করে ফেলতে স্থানীয় লোকজনের সম্মূখে বলেন বলে অভিযোগ করেন।

গত ২২ জুলাই ২০১৯ সকালে সন্ত্রাসী কায়দায় আবুল হোসেন (শাহিন) ৭-৮ জন ভাড়াটে লোকজন নিয়ে ৫০৫ হোল্ডিংয়ের রেকর্ডভুক্ত এ জায়গা ঘর নির্মাণ করার চেষ্টা করে। এছাড়াও ২২/৭২ মামলার চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আদালতে রায়ে ২ একর ৯২ ডিসিম জায়গা এবং ১৬৮ নং খতিয়ানের ৩ একর ৯৫ ডিসিম জায়গা রেকর্ডভুক্ত আছে। উক্ত জায়গা জোর পূর্বক ঘর নির্মাণ করে দখলের চেষ্ঠা করলে পুলিশের সহায়তায় তা রক্ষা পায়।

এই আবুল হোসেন শাহিন ফটিকছড়িতে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে চালিয়ে এবার খাগড়াছড়ির মানিকছড়ির গচ্ছাবিল মন্দিরপাড়া এলাকায় থেকে বিভিন্ন এলাকায় অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে। এ বিষয়ে অপকর্মের সাথে জড়িতদের শাস্তি ও অবৈধ দখল রোধে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা কামনা করেন ভুক্তভোগীরা।