ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মাতৃভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় সরকার কাজ করছেঃ কংজরী

॥ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥

ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মাতৃভাষায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক বছরের শিক্ষা কার্যক্রমের অভিজ্ঞতার উপর সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে খাগড়াছড়িতে। সোমবার সকালে খাগড়াছড়ির ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট হল রুমে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের আহ্বায়ক জুয়েল চাকমার সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।

এতে অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হাবিব উল্লাহ মারুফ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাহ উদ্দিন, ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরণার্থী পুনর্বাসন টাস্কফোর্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কৃষ্ণ চন্দ্র চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা মেহের ইয়াসমিন,পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য শতরূপা চাকমা, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক জীতেন চাকমা ও পোমাং পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মল্লিকা ত্রিপুরা উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কংজরী চৌধুরী ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মাতৃভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় বর্তমান সরকার কাজ করছে মন্তব্য করে বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষুদ্র জাতি গোষ্ঠী সমূহের মাতৃভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় প্রাক প্রাথমিক থেকে দ্বিতীয় শ্রেণী পর্যন্ত চাকমা, মারমা ও ত্রিপুরাসহ ৫টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মাতৃভাষায় পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হয়েছে শিক্ষার্থীদের। আগামীতে এই কার্যক্রম আরও উন্নীত হবে তিনি জানান।