রুমায় অস্ত্রের মুখে ৬ পাড়াবাসীকে অপহরণ!

॥ নুরুল কবির – বান্দরবান ॥

বান্দরবানের রুমায় ৬ উপজাতীয় পাড়াবাসীকে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা। রবিবার (১৫সেপ্টেম্বর) দুপুরে রুমা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দূর্গম ৯নং ওয়ার্ডের সামাখাল নামক এলাকা থেকে তাদের অপহরণ করা হয়। অপহৃতরা হলেন সামাখাল এলাকার গ্রামবাসী এদের মধ্যে ৫জনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হচ্ছেন ফুঅং মারমার ছেলে বাসিং অং মারমা ( ৩০), ২। পুথোয়াই অং মারমার ছেলে হ্লামং মারমা (৪৯), ৩। ক্যাহ্লাউ মারমার ছেলে মংগ্যাই মারমা (৫৮), ৪। ঞোথোয়াই মারমার ছেলে চিংথোয়াই মারমা (৫৪), ৫। মৃত: ক্যামংসি মারমার ছেলে থোয়াই মারমা (৬২)। তারা সবাই সামাখাল পাড়ার বান্দা

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, রবিবার দুপুরে ১০-১২জনের একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ সামাখাল পাড়ায় গিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শৈমং মার্মার খোজ করে। এসময় তাকে না পেয়ে বেশ কয়েক রাউন্ড ফাকাঁ গুলি বর্ষণ করে। পরে ৬ জন পাড়াবাসীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র সরে গেছে। কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। তবে ধারনা করা হচ্ছে পাহাড়ের স্থানীয় সন্ত্রাসী গ্রুপ মগ লিবারেশন পার্টির সদস্যরা এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকতে পারে। এদিকে খবর পেয়ে অপহৃতদের উদ্ধারে পুলিশ ও সেনাবাহিনী যৌথ অভিযানে নেমেছে।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম জানান, রুমা সদর ইউনিয়নের দূর্গম ৯নং ওয়াডের সামাখাল এলাকায় ১০/১২ জনের সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ ৫/৬ জন পাড়াবাসীকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে। দূর্গম এলাকা হওয়ায় মোবাইল নেট না থাকায় যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। অপহৃতদের উদ্ধারে অভিযান শুরু হয়েছে। কে বা কারা অপহরণ করেছে সে বিষয়েও কিছু বলা যাচ্ছে না।

উল্লেখ্য, গত ১৯ আগষ্ট রুমা সদর ইউনিয়নের মুন্নুয়াম পাড়ার সড়কে মিনঝিড়ি রাস্তার মুখ থেকে চাঁদা না দেয়ায় তিন জীপ চালককে অপহরণ করে মগ লিবারেশন পার্টির সন্ত্রাসীরা। পরে আইন শৃংখলা বাহিনীর অভিযান ও মুক্তিপণ দিয়ে তারা ফিরে আসেন।