ব্রেকিং নিউজ

২ জেএসএস কর্মী হত্যার ৭২ঘন্টা অতিবাহিত হলেও লাশ উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ!

প্রতীকী ছবি

॥ ওমর ফারুক সুমন ॥

বাঘাইছড়িতে জনসংহতি সমিতি (জেএসএস- সংস্কার) দলের দুই কর্মী রিপেল চাকমা (২৪) ও বর্ষন চাকমা (২৮) কে গুলিকরে হত্যার ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে ৭২ ঘন্টা পর মামলা করলেও মরদেহ উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। ২০ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাত ৯ ঘটিকায় নিহত রিপেল চাকমার পরিবার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বড় ঋষি চাকমা কে প্রধান করে ২৪ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি এমএ মনজুর বলেন ঘটনাস্থল পাহাড়ি দূর্গম অঞ্চল হওয়ায় দিনভর চেষ্টা করেও খুজাখুজি করে রাত হয়ে যাওয়ায় তারা মরদেহ উদ্ধার না করেই ফিরে আসতে বাধ্য হন। উল্লেখ্য ১৭ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার মধ্যোরাতে উপজেলার বাঘাইছড়ি ইউনিয়নের নবছড়া এলাকায় ঘর থেকে তুলে নিয়ে গুলিকরে হত্যা করা হয় এ দুই সংস্কার কর্মীকে। এই ঘটনার জন্য পার্বত্য চট্রগ্রাম জনসংহতি সমিতি জেএসএস (সন্তু) লারমা সমর্থিত দলকে দায়ী করে নিহতের পরিবার। কিন্তু দায় স্বীকার করেনি জেএসএস (সন্তু) দলের কেউ।

এদিকে এই হত্যাকান্ডকে ঘিরে দুই দলের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে ফলে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে বাঘাইছড়ি বাসী যে কোন সময় বড় ধরনের সংঘাতের আশংখা করছে স্থানীয়রা গত জানুয়ারি থেকে সেপ্টম্বর পর্যন্ত ১৪ জনকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা আহত হয়েছে ৩৫ জন অপহরন ও মারধরের শিকার হয়েছে কমপক্ষে ২০ জন, নিজেদের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধে জড়িয়েছে বহুবার । এসব ঘটনায় মামলা হলেও বার বার আসামীরা রয়েছে ধরাছুয়ার বাহিরে, পর্যাপ্ত জনবল ও যোগাযোগের দূর্গমতাকেই দায়ী করছে পুলিশ।