ব্রেকিং নিউজ

রাঙামাটিতে একই দিনে পৃথক ঘটনায় গৃহবধূসহ তিনজন নিহত

॥ আলমগীর মানিক ॥

পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে পৃথক ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। জেলার লংগদু ও কাপ্তাই উপজেলায় নিহতরা হলো নিহতরা হলো- আব্দুর রাজ্জাক (৪৫), গৃহবধূ শাকিয়া আক্তার (১৯) ও হযরত আলী (প্রকাশ নানা) (৮৫)। লংগদু উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অরবিন্দ চাকমা ও কাপ্তাই থানার অফিসার ইনচার্জ মো: নাছির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্যে জানাগেছে, লংগদু উপজেলার বাইট্টাপাড়া এলাকায় শুক্রবার রাতে চোলাই মদ মনে করে বিষাক্ত স্পিরিট খেয়ে তিনজন গুরুত্বর আহত হয়। এসময় জাকির হোসেন (৪৩) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয় এবং অন্যজন আব্দুর রাজ্জাক (৪৫)কে গুরুতর আবস্থায় চট্টগ্রাম নেওয়া হয়েছে।

আহত আরেকজন লংগদু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি গেছে বলে জানিয়েছেন লংগদু উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অরবিন্দ চাকমা। তিনি জানিয়েছেন, অপর এক ঘটনায় লংগদুর জালিয়াপাড়া এলাকায় শাকিয়া আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধূর আত্মহত্যা করেছে। জানাগেছে, পারিবারিক কলহের জের ধরে গলায় ফাঁস দিয়ে শাকিয়া আত্মহত্যা করেছে।

এদিকে, শুক্রবার সন্ধ্যায় রাঙামাটির কাপ্তাইয়ের নতুন বাজার সংলগ্ন মাঠ প্রাঙ্গনে ট্রাকের (নোয়াখালী দ ১১-০৩৫১) চাকায় পৃষ্ঠ হয়ে হযরত আলী (প্রকাশ নানা) (৮৫) নামের ভিক্ষুকের করুণ মৃত্যু হয়েছে। নামাজ পড়ে বাসায় যাওয়ার পথে চালকের অনুপস্থিতিতেই ট্রাকের সহযোগী মো. মমিন (১৪) গাড়ি স্টার্ট দিলে ঘটনাস্থলেই চাকায় পৃষ্ঠ হয়ে তিনি মারা যান বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে।

বয়সের ভারে কাজ করতে না পারায় বাড়ির পার্শ্বোক্ত বাজারেই নামাজ শেষে ভিক্ষাবৃত্তি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন হযরত আলী। মায়ার ছলে মাথায় হাত বুলিয়ে নিকটাত্মীয়ের ন্যায়-ই সকলকে কাছে টেনে নিতেন তিনি। তার করুন মুত্যুতে এলাকায় নেমেছে শোকের ছোঁয়া। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কাপ্তাই থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাছির উদ্দিন।