ব্রেকিং নিউজ

রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত হবে ৬৪তম খোশরোজ শরীফ

॥ আবদুল নাঈম মোহন ॥

হুজুর কেব্লা হযরত ছৈয়দ মোঃ আমীর উদ্দিন শাহ্ ছাহেব (জামিরজুরী দরবার শরীফ, দোহাজারী, চন্দনাইশ, চট্টগ্রাম) এর ৬৪তম পবিত্র খোশরোজ শরীফ আগামী ২৯ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিঃ রোজ মঙ্গলবার বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে, রাঙামাটি সদর উপজেলাদিন কলেজ গেইট, আমানতবাগ রোড় “আমানতবাগ দরবার শরীফ” প্রাঙ্গনে অনুষ্টিত হবে।

পবিত্র খতমে কোরআন এর মধ্যে দিয়ে খোশরোজ শরীফ অনুষ্ঠান শুরু হবে। বাদে মাগরিব থেকে মিলাদ ও ছেমা মাহফিলের পর আখেরি মোনাজাত ও সর্বশেষে তাবারুক বিতরণের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সম্পন্ন করা হবে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে হাজারো ভক্তগণ বিভিন্ন ধরণের হাদিয়া তোহফা নিয়ে মিলিত হয় প্রতিবছরের নির্ধারিত এদিনে। আর তাতে ভক্তগণের মিলন মেলা সৃষ্টি হয়।

৭ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিঃ রোজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সময় আমানতবাগ দরবার শরীফ প্রাঙ্গনে ৬৪তম পবিত্র খোশরোজ শরীফ যতাযত ভাবে সম্পন্ন করার লক্ষে আলোচনা ও প্রস্ততি সভা অনুষ্টিত হয়েছে। আর এতে সিদ্ধান্ত হয় প্রতিবারের মত এবার রাঙামাটি সদরে অবস্থিত “আমানতবাগ দরবার শরীফ” প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হবে। খোশরোজ শরীফ উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জনাব, মোঃ আবদুল শুক্কুরের পরিচালনায়, এতে সভাপত্বি করেন খোশরোজ শরীফ উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি জনাব, মোঃ ইয়াকুব আলী।

খোশরোজ শরীফ উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জানান, পবিত্র খোশরোজ শরীফ সফল ভাবে সম্পন্ন করার লক্ষে উদ্যাপন পরিষদের পক্ষে থেকে ৩১ বিশিষ্ট একটি স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠন করেছি, এতে স্বেচ্ছাসেবক প্রধান হিসাবে দায়িত্ব থাকবেন, রাঙামাটি পৌরসভার ৪নং ওর্য়াড কাউন্সিলর ও মোঃ মিজানুর রহমান (বাবু)। তিনি আরো জানান, এই স্বেচ্ছাসেবক টিম টি সদস্যরা ২৯ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিঃ পবিত্র খোশরোজ শরীফের দিনে সকাল থেকে অনুষ্টান সম্পন্ন হওয়া পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে দায়িত্ব পালন করবেন।

পবিত্র খোশরোজ শরীফ প্রচারে বিষয়ে জানতে চাইলে, পবিত্র খোশরোজ শরীফ উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি জনাব, মোঃ ইয়াকুব আলী জানান, প্রতি বছর আমরা রাঙামাটি শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে ব্যানার, পেষ্টুন, লিপলেট বিতরণ করে থাকি, তবে এবছর শুধু আমার রাঙামাটি শহরের লোকাল চ্যানালে প্রচার, পোষ্টার ও লিপলেট বিতরণের মাধ্যেমে সবাইকে পবিত্র খোশরোজ শরীফ মাহাফিলের দাওয়াত পৌছায় দিবো। আর এতে অতীতের ন্যায়ে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলে অংশ গ্রহণ করবে বলে আমরা মনে করছি।

হুজুর কেব্লার আগমন বিষয়ে জানতে চাইলে, পবিত্র খোশরোজ শরীফ উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জানান, অনুষ্ঠান ২৯ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিঃ হলেও হুজুর কেব্লা ২৮ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিঃ সন্ধ্যায় রাঙামাটি এসে পৌছাবে। সেদিন হুজুর কেব্লার সম্মানে রাঙামাটি শহরের প্রবেশ মূখ, মানিকছড়ি থেকে মোটরসাইকেল র‌্যালি করে আমানতবাগ দরবার শরীফ প্রাঙ্গণে এসে পৌছাবেন। পবিত্র খোশরোজ শরীফ উদ্যাপন পরিষদের পক্ষে থেকে সকলকে উপস্থিত থেকে র‌্যালিতে অংশ গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করছি।

আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে জানতে চাইলে, তিনি জানান, বিগত বছর গুলোতে কোন প্রকার সমস্যায় ছাড়াই আল্লাহ্ অশেষ রহমতে ও সবার সহযোগিতায় আমরা সফল ভাবে সম্পন্ন করে আসছি। আমরা আশা করছি এবারও তার ব্যাতিক্রম হবে না। তার পরও রাঙামাটি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় আমরা অবিহিত করে রাখবো।

পবিত্র খোশরোজ শরীফ পরিচালনা ও আখেরী মোনাজাত করবেন, পবিত্র খোশরোজ শরীফ উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি জনাব, মোঃ ইয়াকুব আলী।