ব্রেকিং নিউজ

পরিচ্ছন্নতা অভিযানে স্বেচ্ছাসেবীদের উৎসাহ যোগালেন পুলিশ সুপার

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

“পরিচ্ছন্নতা শুরু হোক আমার থেকে” এই স্লোগানে রাঙামাটি জেলার কিছু উদ্যমী সেচ্ছাসেবীদের উদ্যোগে পর্যটন শহর রাঙামাটিকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করার লক্ষ্যে জেলা শহরের পৌরভবন সংলগ্ন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নিয়ন্ত্রণাধীন  কাঠালতলীর মৎস্য জলাশয়’র জলাবদ্ধ প্রতিবন্ধকতা দূর করার জন্য কচুরিপানা ও ময়লা আবর্জনা অপসারণের কাজ শুরু করে।

তারই ধারাবাহিকতায় শনিবারও সেচ্ছাসেবীরা রাঙামাটির পৌরভবন সংলগ্ন কাপ্তাই হ্রদের মধ্যখানে জনবসতিপূর্ণ এলাকায় জমে থাকা বিপুল পরিমান কচুরিপানা সেচ্ছাসেবক তরুণ-তরুণীরা অপসারণ করার মাধ্যমে এলাকার জঞ্জাল পরিষ্কার করে।

এদিকে উদ্দ্যমী এই তরুণ-তরুণীদের কর্মকান্ডে উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে রাঙামাটি পুলিশের সর্বোচ্চ কর্তা পুলিশ সুপার আলমগীর কবির এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. ছুফিউল্লাহ এবং অতিরিক্ত পলিশ সুপার মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল ও গিয়ে তাদের সাথে একাত্বতা প্রকাশ করেন এবং তাদের এই কাজের প্রশংসা করেন।

এই সময় পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর সেচ্ছাাশ্রম দেয়া শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের উদ্দেশ্য বলেন যে, তোমাদের এই কাজ অত্যন্ত প্রশংশনীয় আমরা নিজেদের থেকে নিজেরাই সচেতনতার মাধ্যমে। যদি নিজেদের এলাকাটিকে একটি অন্যতম পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে উদ্যোগী হই । তাহলে আমাদের এলাকাটি রাঙামাটি জেলার বাহিরেও সারাদেশে একটি মডেল পর্যটন এলাকা হিসেবে পরিচিতি পাবে। অদূর ভবিষ্যতেও সেচ্ছাশ্রমীকদের সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন রাঙামাটির পুলিশ সুপার।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. জামাল উদ্দীন।