এবার সেচ্ছাসেবীদের সাথে কচুরিপানা পরিষ্কার করলেন আবু সৈয়দ

॥ ইকবাল হোসেন ॥

রাঙামাটি জেলার কিছু তরুন সেচ্ছাসেবীদের উদ্যোগে রাঙামাটি’র কাপ্তাই হ্রদ কে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করার লক্ষে। রাঙামাটি সদর উপজেলার পৌরসভা ভবন সংলগ্ন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নিয়ন্ত্রণাধীন। কাঁঠালতলীর মৎস্য জলাশয়’র জলাবদ্ধ প্রতিবন্ধকতা দূর করার জন্য কচুরিপানা গত বুধবার (৯ অক্টোবর) অপসারণের কাজ শুরু করে।

তারই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) ৭ম দিনের মতো সেচ্ছাসেবীরা রাঙামাটির পৌরভবন সংলগ্ন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড’র নিয়ন্ত্রনাধীন কাঁঠালতলী মৎস জলাশয়ে জমে থাকা বিপুল পরিমান কচুরিপানা সেচ্ছাসেবকরা অপসারণ করার মাধ্যমে এলাকার জঞ্জাল পরিষ্কার করার কাজ করছে।

সেচ্ছাসেবকদের উৎসাহ প্রদান করার জন্য সোমবার সকালে- বৃহত্তর বনরুপা ব্যবসায়ী কল্যান সমিতি’র সভাপতি মোহাম্মদ আবু সৈয়দ সেচ্ছাসেবিদের সাথে কচুরিপানা অপসারনের কাজে যোগদান করেন। এসময় তিনি নিজ হাতে সেচ্ছাসেবীদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কচুরিপানা পরিষ্কার করেন।

এসময় অর্ধশতাধিক সেচ্ছাসেবীদের পাশাপাশি আরো উপস্থিত ছিলেন বৃহত্তর বনরুপা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাপস দাস, রাঙামাটি পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. জামাল উদ্দীন, রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন রিমন বাবু, জেলা ছাত্রলীগের স্কুল বিষয়ক সম্পাদক তারেক হোসেন মাহিম, জেলা ছাত্রলীগের ফাহিম প্রমুখ।

এসময় বৃহত্তর বনরুপা ব্যবসায়ী কল্যান সমিতি’র সভাপতি মোহাম্মদ আবু সৈয়দ সেচ্ছাসেবীদের এই মহৎ উদ্যোগকে স্বাগত জানান। এর পাশাপাশি তিনি সেচ্ছাসেবীদের যেকোন প্রকার সহযোগিতার ক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন।