সমতলের সমান্তরালে পাহাড়েও দুর্নীতিবাজদের দমন করা হবেঃ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

॥ আল-মামুন – খাগড়াছড়ি ॥

সন্ত্রাস ও দুর্নীতিবাজদের কোন ছাড় নেই মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, এদেশ হবে বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সু-শৃঙ্খল সোনার বাংলাদেশ। এদেশে কোন বিশৃঙ্খলাকারী,সন্ত্রাসী-জঙ্গীর ঠাই হবে না। অপরাধী সে যেই হোক তাকে ছাড় দেওয়া হবেনা বলেও তিনি মন্তব্য করেন। বুধবার দুপুরে রামগড় নবনির্মিত থানা ও ৪তলা বিশিষ্ট ব্যারাক ভবন আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও পরবর্তী জেলা পুলিশ আয়োজিত মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে গাইড লাইন তৈরীর কাজ চলছে। পার্বত্য জেলায় শান্তি বজায় রাখাসহ পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। সে সাথে জনপ্রতিনিধি,সুশীল সমাজ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীদের নিয়ে বৈঠকের মাধ্যকে পুলিশ ও বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বৃদ্ধির কাজ অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো জানান, পাহাড়েও দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সমতলের মতো অভিযান অব্যাহত থাকবে। সরকার পাহাড় ও সমতলে সমান্তরাল ভাবে উন্নয়ন ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কাজ করছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মোহা আহমার উজ্জামানের সভাপতিত্বে সমাবেশে খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, সংরক্ষিত সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা ও বিজিবি’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম ও পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক,খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী,জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস, খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র রফিকুল আলম,রামগড় পৌর মেয়র কাজী রিপন,খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরী,যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু,শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম দিদার,পাজেপ সদস্য পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল,জুয়েল চাকমা,শতরূপা চাকমাসহ দলীয় নেতাকর্মীরা এতে অংশ নেয়।