পাহাড়ের অশান্তি সৃষ্টিকারিদের যেকোনো মূল্যে নির্মূল করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী(ভিডিও)

॥ আলমগীর মানিক ॥ 

পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠায় জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক শান্তি চুক্তির মাধ্যমে পাহাড়ে শান্তির যে সুবাতাস আনা হয়েছে কতিপয় সন্ত্রাসীদের দ্বারা সেই প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্থ করবে সেটি কখনোই হতে দেওয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। যেকোনো মূল্যে অশান্তি সৃষ্টিকারিদের নির্মূল করা হবে বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রী। পাহাড়ের সকল স্তরের নেতৃবৃন্দসহ অত্রাঞ্চলে কর্মরত নিরাপত্তাবাহিনী ও প্রশাসনের সর্বোচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে আয়োজিত তিন পার্বত্য জেলার আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সরকারের কার্যকর পদক্ষেপের মাধ্যমে সারাদেশের অন্যান্য অঞ্চলে সন্ত্রাসী-জঙ্গীবাদ ও মাদক ব্যবসায়িরা সম্পূর্নরূপে ধ্বংস হয়ে গেলেও পার্বত্য চট্টগ্রামে এখনো খুন-চাঁদাবাজি কিভাবে চলছে এমন প্রশ্ন তুলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে যা যা করনীয় তার সবটুকুই করবে সরকার। অপার সম্ভাবনাময় পার্বত্য এই অঞ্চলের জনগণের জন্য এখানে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠায় কি কি করনীয় সেটি জানতেই আমরা রাঙামাটিতে এসে এই বিশেষ আলোচনার সভার আয়োজন করেছি।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপির সভাপতিত্বে রাঙামাটির ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি মিলনায়তনে আয়োজিত উক্ত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, সরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা, বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি মোঃ জাবেদ পাটোয়ারী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহাম্মেদ, বিজিবি’র মহা-পরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুর ইসলাম, আনসার ব্যাটালিয়নের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ কায়কোবাদসহ তিন পার্বত্য জেলার সার্কেল চীফগণ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানগন, হেডম্যান কার্বারী ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে সকাল সাড়ে দশটা থেকে এই আলোচনা সভা চলছে।

এরআগে গতকাল বিকেলে রাঙামাটিতে এসে সন্ধ্যা পৌনে সাতটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত বাহিনীগুলোসহ গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধিবর্গ ও প্রশাসনের সর্বোচ্চ পর্যায়ে কর্মকর্তাদের নিয়ে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বিশেষ আইনশৃঙ্খলা সভায় অংশগ্রহণ করেন।