মসজিদের জমি জবর দখল নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা!

॥ হাটহাজারী প্রতিনিধি ॥

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে প্রভাবশালী ভুমি দস্যুরা একটি মসজিদের কিছু জমি জবর দখল নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টির করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে চট্রগ্রাম অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট(মহানগর) আদালতে মামলা হয়েছে। উপজেলার উত্তর মাদার্শা শামির মোহাম্মদ বাড়ি এলাকার ২ নং ওয়ার্ড ওই মসজিদ অবস্থিত। মুসল্লিরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এলাকাবাসী জানায়,তারা দীর্ঘ দিন ধরে ওই মসজিদে নামাজ পড়ে আসছিল।

এ বিষয়ে গত ১৭ নভেম্বর ২০১৯ইং চট্রগ্রাম অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট(মহানগর) আদালতে আবুল কালাম পিতা: হাজী কালা মিয়া মিন্ত্রী বাদী হয়ে মিছ মামলা নং ৫০৬/২০১৯ইং রুজু করেন।

মামলার প্রতিপক্ষরা হলেন, এনামুল হক,আজাদুল ইসলাম,বখতেয়ার হোসেন,মোহাম্মদ লোকমান,মোহাম্মদ কাসেম,মোহাম্মদ এরশাদুল বাবুল,মোহাম্মদ এমরান,ওমর ফারুক রাসেল, সর্ব সাং ঐ উপজেলার উত্তর মাদার্শা ১০ নং ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা।

অভিযোগ সুত্রে দেখা যায়,মামলার বাদী উক্ত সম্পক্তির মালিক ও ভোগ দখলকার। অপর দিকে প্রতিপক্ষগণ সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ,জুলুমবাজ,ভুমিদস্যু। তারা সব সময় মানুষের জায়গা সম্পক্তি ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপের মাধ্যমে এলাকায় ত্রাস রাজত্ব করে আসছিল।

উক্ত জায়গাটি কালা মিয়া গংদের পৈত্রিক সম্পক্তি হয়। সেখানে দীর্ঘ বহু বছর থেকে একটি ফোরকানিয়া মাদ্রাসা ও এবাদতখানা নির্মাণ করেন। পরবর্তী এলাকাবাসীদের চাহিদা মতে আরো কিছু জায়গা নিয়ে একটি মসজিদ নির্মাণ করা হয়। সেই মসজিদে এলাকার অসংখ্য লোকজন নামাজ পড়ে আসছিল। মসজিদের পাশে কিছু খালি জায়গা ছিল উক্ত জমিটি দখল নিতে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিপক্ষরা। এ নিয়ে দু”পক্ষের রক্তক্ষয়ী আশংকা দেখা দিয়েছে।