শান্তিচুক্তি নিয়ে সাংসদ দীপংকর তালুকদারের উক্তি!

আজকে শান্তিচুক্তির ২২ বছর হয়েছে। ২২ বছরে আমরা একবারো বলিনি শান্তিচুক্তি পূর্ণবাস্তবায়িত হয়েছে। বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে এবং এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। ২২ বছরে কেন শান্তিচুক্তি পূর্ণ বাস্তবায়িত হয়নি সেটার কষ্ট আমাদের মধ্যেও রয়েছে। তবে সেই সাথে পূর্ণ বাস্তবায়িত কেন হচ্ছে না সেটার বিশ্লেষনও আমাদের করতে হবে। অসংযত বক্তব্য প্রদান, নৈরাজ্যমূলক আচরণ, অস্ত্রের ভাষায় কথা বলা, শান্তি চুক্তির পক্ষের শক্তিকে গুলি করে হত্যা করা এসবই শান্তিচুক্তি পূর্ণ বাস্তবায়নে বিলম্বিত করছে। 

একইসাথে আমরা লক্ষ্য করেছি বিগত দিনে যারা “ইউপিডিএফকে ব্যান কর” “ইউপিডিএফকে ব্যান কর” বলে স্লোগান দিয়েছে তারাই এখন ইউপিডিএফের সাথে হাত মিলিয়ে রাজনীতি করছে। আবার অন্যদিকে বিএনপির মত দল যারা শান্তিচুক্তির ঘোরতর বিরোধী ছিল তাদের সাথেও বিশেষ দলটি উঠাবসা করছে। আমরা তাদেরকে এটুকু বুঝাতে চাই যারা শান্তিচুক্তি স্বাক্ষর করেছে তাদের পক্ষেই বাস্তবায়ন সম্ভব যারা এই চুক্তি চায়নি বা মানে না তাদের পক্ষে এই চুক্তি বাস্তবায়ন সম্ভব না।

চুক্তি কতটুকু বাস্তবায়িত হয়েছে তা শতকরা হিসেব করলে হবে না তবে এতটুকু বলতে পারি চুক্তির অনেকটাই বাস্তবায়িত হয়েছে। পারস্পরিক বিশ্বাসের ঘাটতির কারণে চুক্তির অন্যতম মৌলিক বিষয় ভূমি কমিশনের কাজ আটকে রয়েছে নাহলে কাজ অনেক আগেই শুরু হয়ে যেত।